হাজীগঞ্জে মিলেছে অজ্ঞাত লাশের পরিচয়।

চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ
 
 বুধবার (২৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮টায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক সড়কের হাজীগঞ্জ পৌর এলাকার মিঠানিয়া ব্রীজ সংলগ্নে অজ্ঞাত যুবকের লাশ পাওয়া যায়।যুবকের বয়স ৩০ বছর হবে।পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাজীগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলমগীর হোসেন রনি।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, সকাল সাড়ে ৮টায় ইকবাল মজুমদারের বালুমহালের ম্যানেজার মহিন উদ্দিন এসে মৃতদেহ দেখতে পায়। তিনি জানান, প্রতিদিন সন্ধ্যায় বালুমহাল বন্ধ করে চলে যাই।

সরজমিনে দেখা গেছে, ইকবাল মজুমদারের বালুমহলে এ ঘটনা ঘটে। মরদেহের পাশে তিনটি জুতা ও দুইটি মাস্ক রয়েছে।

পিবিআই পরিদর্শক মীর মাহবুবের নেতৃত্বে একটি দল ফিঙ্গার প্রিন্টের স্ক্যানার মেশিন নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। সেখানে নিহতের আঙ্গুল মেশিনের উপরে রাখে। রাখার সঙ্গে সঙ্গে বেরিয়ে আসে নিহতের পরিচয়। জানা যায়, নিহতের নাম সোহেল (২৪),পিতার নাম আব্দুল কাদের,মাতা হাছিনা বেগম। বাড়ি হাজীগঞ্জ পৌর ৯নং ওয়ার্ড কংগাইশ (জামাল ড্রাইভারের বাড়ি। ছেলেটি পেশায় অটো চালক।

পরে লাশটি চাঁদপুর সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মো. আব্দুর রহিম।

তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) চাঁদপুর পরিদর্শক মীর মাহবুব জানান, শুধু অজ্ঞাত লাশ নয়, কোন ব্যক্তির বিরুদ্ধে দেশের কোন থানায় মামলা বা জিডি আছে কিনা তাও জানা যাবে এই যন্ত্রের মাধ্যমে। এমনই অত্যাধুনিক এসব যন্ত্র হাল্কা ও সহজেই বহনযোগ্য। যন্ত্রটির মাধ্যমেই অজ্ঞাত লাশটির পরিচয় সফলভাবে শনাক্ত হয়েছে।

পুলিশ জানায়,যুবককে ইট দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের সাথে একাধিক ব্যক্তি জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এছাড়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফজাল হোসেন, অফিসার ইনচার্জ (ওসি), আলমগির হোসেন রনি, পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) আব্দুর রশিদ সহ পিবিআই, ডিবি সহ পুলিশ কর্মকর্তারা।
Marcadores:

Post a Comment

[blogger]

যোগাযোগের ফর্ম

Name

Email *

Message *

Theme images by merrymoonmary. Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget