মানিকগঞ্জে প্রতারক ফয়সাল গ্রেফতার,চোরাই অর্থ উদ্ধার।


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ  
মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার পারিল শাখার সদ্য বরখাস্তকৃত এবি ব্যাংক কর্মকর্তা ফয়সাল আলম সিহাব(২৪) প্রতারণার মাধ্যমে ১কোটি ৩০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়।তিনি শিক্ষানবিশ অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
পরে প্রতারণাকৃত ৩৫ লাখ ৭৮ হাজার টাকাসহ ফয়সাল আলম সিহাবকে গ্রেফতার করে সিআইডি।

সোমবার(২৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ( সিআইডি) এর মানিকগঞ্জের বিশেষ পুলিশ সুপার মীর্জা আব্দুল্লাহেল বাকী সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এসময় তিনি বলেন, অপেশাদারি কার্যকলাপের জন্য ৫ জুলাই দায়িত্ব থেকে ফয়সালকে বরখাস্ত করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি গোপন রেখে এর দুই দিন পরে ব্যাংকের অন্য কর্মকর্তার আইডি ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে এবি ব্যাংকের উত্তরা শাখার একটি ভূয়া এ্যাকাউন্টে ১ কোটি ৩০ লাখ টাকা জমা করেন তিনি।
এক সহযোগীর মাধ্যমে সেখান থেকে ৫০ লাখ টাকা নগদ উত্তোলন এবং৭৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা আরটিজিএস এর মাধ্যমে গাড়ি বিক্রেতার এ্যাকাউন্টে দিয়ে দুইটি নতুন গাড়ি ক্রয় করে ফয়সাল।

 প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়টি টের পেয়ে ১০ জুলাই সিংগাইর থানায় ফয়সালসহ চারজনকে আসামি করে অভিযোগ করেন এবি ব্যাংকের পারিল শাখার ব্যবস্থাপক। মামলাটি তদন্ত দায়িত্ব পেয়ে সিআইডি কর্মকর্তা তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ক্রয়কৃত নতুন গাড়ি দুইটি ঢাকার ঝিগাতলা থেকে উদ্ধার করেন। আর এই কাজে সহায়তার জন্য একইদিনে গ্রেফতার করা হয় মুত্তাকিন আহমেদ সিয়াম(২২) নামের ফয়সালের এক বন্ধুকে। এরই ধারাবাহিকতায়২৬ জুলাই রাতে সিংগাইরের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয় প্রধান আসামি ফয়সালকে।এসময় তার বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় ৩৫ লাখ ৭৮ হাজার টাকা বাকি টাকা উদ্ধার এবং প্রতারণার সাথে জড়িত সকল ব্যক্তিকে গ্রেফতারের অভিযান চলমান রয়েছ। আর ফয়সালকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানোর প্রস্ততি চলছে বলে জানান সিআইডির পুলিশ সুপার মীর্জা আব্দুল্লাহেল বাকী।

No comments

Powered by Blogger.