মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধের মতোই সোনারগাঁও আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি--আব্দুল্লাহ আল কায়সার।

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ  

২০০৪ সালের ২১ আগষ্টে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে বর্বোরোচিত গ্রেনেড হামলায় নিহত সকল শহীদদের স্মরণে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলা যুবলীগের আয়োজনে এক দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শুক্রবার (২১ আগস্ট) বিকালে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা় এলাকায় অবস্থিত সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রধান কার্যালয়ে  এ দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।   

সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি হাজী রফিকুল ইসলাম নান্নুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ ও সোনারগাঁওয়ের আওয়ামী লীগের দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোশারফ হোসেন,মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু, কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসরিন সুলতানা ঝরা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি গাজী মুজিবুর রহমান, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী কামাল হোসেন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দীক, কাঁচপুর শিল্পাঞ্চল শ্রমিক লীগের সভাপতি হাজী মোঃ আব্দুল মান্নান মেম্বার, উপজেলা যুবলীগের সহ সম্পাদক জিয়াউল হোসেন, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোঃ শিপন সরকার, শম্ভুপুরা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল কাইয়ূম সহ উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

দোয়া ও আলোচনা সভার প্রধান অতিথি সাবেক সংসদ সদস্য কায়সার হাসনাত তার বক্তব্যে সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি নিয়ে

বলেন, আহ্বায়ক কমিটি শুরুর প্রক্রিয়াই ছিলো আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক আচরণ বিরোধী।

তাছাড়া সবকিছুরই একটি মেয়াদ উত্তীর্ণের সময় থাকে।

সেটা ঔষধ হোক অথবা কোনো খাবার হোক। আমরা কেউ কিন্তু মেয়াদ উত্তীর্ণ খাবার খাই না, ফেলে দেই। আহ্বায়ক কমিটির মেয়াদ থাকে তিন মাস। আহ্বায়ক কমিটি মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেছে কিন্তু তারা এতো দিনেও সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের জন্য কিছুই করতে পারেনি। তাই সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল কর্মীরা মেয়াদ উত্তীর্ণ খাবারের মতো তাদেরকেও ছুঁড়ে ফেলে দিছে।

আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে নেতাকর্মীরা বক্তব্যে, শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিচালিত ২১ আগস্টের বর্বোরোচিত গ্রেনেড হামলার ঘটনার বর্ণনা তুলে ধরে বলেন, দলকে সুসংগঠিত করতে হলে সকল মান অভিমান ভূলে দলের জন্য কাজ করতে হবে। দলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করতে হবে।

No comments

Powered by Blogger.