নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে এনজিও কর্মী হত্যা মামলার আসামী মোছাঃশারমিন আক্তার গ্রেফতার।

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

   নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ে চাঞ্চল্যকর এনজিও কর্মী হত্যা মামলার আসামী মোছাঃ শারমিন আক্তারকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১১।

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১'এর একটি অভিযানিক দল গত (৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কুমিল্লা জেলার মেঘনা থানাধীন টিটিরচর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চাঞ্চল্যকর এনজিও কর্মী হত্যা মামলার এজাহার ভুক্ত আসামী মোছাঃ শারমিন আক্তার (২৩)কে গ্রেফতার করে।

জিজ্ঞাসাবাদ জানা যায়, মোছাঃ শারমিন আক্তার নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার বারদি ইউনিয়নের মিশ্রীপাড়া গ্রামের মোঃ শামসুদ্দিনের ছেলে মোঃ হান্নানের স্ত্রী। শারমিন আক্তার এনজিও প্রতিষ্ঠান ব্যুরো বাংলাদেশ, বারদী শাখা হতে ৫০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন যা সাপ্তাহিক ১,২৫০/- টাকা হারে পরিশোধ করার কথা। 

ঘটনার দিন গত ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে নিহত এনজিও কর্মী ব্যুরো বাংলাদেশ, বারদী শাখার প্রোগ্রাম অর্গানাইজার মোঃ সাজিদুর রহমান পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী কিস্তির টাকা আদায়ের উদ্দেশ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার বারদি ইউনিয়নের মিশ্রীপাড়া গ্রামের মোঃ শামসুদ্দিনের ছেলে হান্নানের বসত বাড়িতে যান। পরবর্তীতে সেখান থেকে এনজিও কর্মী সাজিদুর রহমান এর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

 এই ঘটনায় নিহত এনজিও কর্মীর সহকর্মী ব্যুরো বাংলাদেশ, বারদী শাখার ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মোঃ শামীম মিয়া বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার থানায় পেনাল কোড আইনের ৩০২/৩৪ ধারায় একটি নিয়মিত হত্যা মামলা দায়ের করেন, যার মামলা নং- সোনারগাঁ ১১(০৯)২০। এই নির্মম ও বর্বরোচিত হত্যাকান্ডের ফলে এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

 এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১ কর্তৃক গোয়েন্দা নজরদারী ও গোপন অনুসন্ধানের মাধ্যমে একটি বিশেষ অভিযানিক দল গত ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে দুপুরে কুমিল্লা জেলার মেঘনা থানাধীন টিটিরচর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে এজাহার ভুক্ত ৩নং আসামী মোছাঃ শারমিন আক্তার (২৩)’কে গ্রেফতার করে।গ্রেফতারকৃত আসামীকে গতকাল রাত্রেই নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও থানায় হস্তান্তর করা হইয়াছে।


এসএস/বি

No comments

Powered by Blogger.