সোনারগাঁয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও লুটপাট, আহত-৪

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ


নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার ঝাউচর গ্রামে দোকানের বকেয়ার টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে বসতবাড়ি ও দোকানপাট ভাংচুর এবং লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের ২ জন নারীসহ ৫ জন আহত হয়েছে।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ঝাউচর গ্রামের আইয়ুব এর কাছে দোকানদার মিন্টু তার দোকান হইতে বকেয়া মালমাল ক্রয়ের টাকা চাইলে আইয়ুব ক্ষেপে গিয়ে  দোকানদার মিন্টুকে থাপ্পড় দেয়, দোকান মালিক আকরাম আলী তার প্রতিবাদ করেন। 

গতকাল রবিবার মধ্য রাতে আইয়ুব এর পক্ষে আল আমিন ও বাদসার নেতৃত্বে ৪০/৫০ জন ধারালাে ছেনাদা,দা, লােহাররড , কাঠের ও বাঁশের লাঠিসােঠা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালিয়ে মারধর ও আকরাম আলীর বাড়ি-ঘরে ভাংচুর লুটপাট করে। এতে আহত হোন আকরাম আলী, শিউলী বেগম, সেতেরা বেগম ও দোকানদার মিন্টু। এ ঘটনায় প্রায় ত্রিশ লাখ টাকার ক্ষতিসাধিত হয় এবং রাতেই আহতদের সােনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় ।

ক্ষতিগ্রস্ত আকরাম আলীর ভাই মাঈন উদ্দিন সোমবার দুপুরে বাদি হয়ে সোনারগাঁও থানায় ১১ জনের নামে লিখত অভিযোগ করেন। অভিযোগে ভাংচুর,লুটপাটের পাশাপাশি তাদের দুটো গাভীও নিয়ে গেছেন বলে উল্লেখ্য করেন।

আসামিরা হলেন, আলআমিন ( ৪০ ), আইয়ুব ( ২৭ ), সুরুজ মিয়া ( ৬৫ ), আলী ( ৪০ ), জাকির ( ২৫ ),আয়ুব নবী ( ৩০ ), শিপু (৩৫), পারু (৬৫), জসিম, বাদশা সালামত ( ৪০ ), কাসেম ( ৩০ ) 

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনায় উভয় পক্ষের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এসএস/বি

No comments

Powered by Blogger.