অবৈধভাবে অন্যের জমির উপর দিয়ে ডাইংয়ের দূষিত পানি নিষ্কাশনের জন্য পাইপ বসিয়েছে চৈতি গ্রুপ





নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে অবস্থিত চৈতি কম্পোজিট লিমিঃ  ফ্যাক্টরির বিরুদ্ধে ডাইং এর দূষিত পানি নিষ্কাশনের জন্য অবৈধভাবে ও  জোরপূর্বক জমি দখল করে পাইপ  বসানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায় চৈতি গ্রুপের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে সাধারণ অসহায় এলাকাবাসী,
 চৈতি কম্পোজিট লিমিটেড এর পিছনে টিপুরদী খাল যেখান সরাসরি যোগ হয়েছে মেনি খালি নদীতে সেই খাল দিয়ে, দীর্ঘদিন যাবৎ চৈতির ডায়িংয়ের দূষিত পানি ফেলে মারাত্মক পরিবেশ দূষণ করছেন, যার ফলে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে কয়েকবার প্রতিবাদ করা হয়েছে এবং বিগত সময়ে, সোনারগাঁয়ের ৩ আসনের এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা নিজে উপস্থিত থেকে পানি সমপ্রসারণের পাইপ বন্ধ করে দিয়েছিল।
 তবে চৈতি গ্রুপ প্রভাব খাটিয়ে সেই পাইপ আবার সচল করে । 
চৈতি গ্রুপ, ইদানিং সোনারগাঁও উপজেলার পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর মোশারফ এর মাধ্যমে আজ মঙ্গলবার অবৈধভাবে হাজী সাকিল রানার ও তার বোনের জায়গা দখল করে ডাইং এর পানি নিষ্কাশনের জন্য পাইপ বসানোর কাজ শুরু করে এসময় জায়গার মালিক,প্রবাসী  হাজী সাকিলের পরিবার পাইপ বসানোর কাজে বাধা দিলে তাদেরকে কোম্পানির পালিত ভাড়া করা সন্ত্রাসী মোশারফ হোসেন  বিভিন্ন ভয়-ভীতি দেখায় ।
এ সময় ভুক্তভোগীদের কে উত্তেজিত হয়ে অকাট্য ভাষায় নানান ধরনের কথাবার্তা বলেন এই সময় চৈতি কম্পোজিট এর ডি জিএম বদরুল আলম জনগণকে আশ্বস্ত করেন যে তাদের সাথে বসে মীমাংসা করার পর পাইপ বসানোর কাজ করবে।  তার কথায় আশ্বস্ত হয়ে জনগণ যে যার মত চলে যাওয়ার পর পুনরায় আবার কাজ চালু করে পরবর্তীতে তার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন পুনরায় কাজ শুরু করার বিষয়ে আমি জানিনা। এরপর থেকে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

No comments

Powered by Blogger.