সৌরভ আইসিসির সভাপতি হলে বিচার পাবেন কানেরিয়া

দেশের ভেতর থেকে কথা উঠেছে আগেই, বহির্বিশ্বে প্রথম সৌরভ গাঙ্গুলীর নামটা উচ্চারণ করেন সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক ডেভিড গাওয়ার। তার মতে, আইসিসির সভাপতি হওয়ার যোগ্য সৌরভ গাঙ্গুলী এবং সেটি হলে ভালোই করবেন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) বর্তমান সভাপতি।
এরপর সৌরভকে আইসিসির সভাপতি পদে দেখার ইচ্ছাটা জানিয়ে দেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমানে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকার ডিরেক্টর অব ক্রিকেট গ্রায়েম স্মিথ। দক্ষিণ আফ্রিকা সৌরভকে সমর্থন করবে এমনটাও জানিয়ে দেন তিনি। আইসিসির শীর্ষ পদে ভারতের সাবেক অধিনায়ককে এবার ভীষণভাবেই দেখতে চাইছেন আরেক সাবেক বিদেশি ক্রিকেটার। ইনি দানিশ কানেরিয়া।
অবশ্য সাবেক পাকিস্তানি লেগ স্পিনারের এই আকাঙক্ষা ব্যক্ত করা ছাড়া আর কিছু করার হয়তো নেই। তিনি যে স্পট-ফিক্সিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ হয়ে আছেন আজীবন! সৌরভকে আইসিসির সভাপতি পদে দেখার বাসনাটা তার এই স্বার্থসংশ্লিষ্ট। কানেরিয়া ভাবছেন সৌরভ আইসিসিতে এলে তিনি তার নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিল করবেন এবং সুবিচার পেয়ে মুক্ত হবেন।
ভারতের টিভি চ্যানেল যখন কানেরিয়ার কাছে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিল করবেন কি না জানতে চায়, তখন তিনি বলেন, ‘ হ্যাঁ, আমি (গাঙ্গুলীর কাছে) আপিল করবো এবং নিশ্চিত যে আইসিসি আমাকে সম্ভাব্য সব উপায়েই সাহায্য করবে।’
পাকিস্তানের হয়ে কানেরিয়া টেস্টে কানেরিয়া ২৬১ উইকেট পেয়েছেন, তার চেয়ে বেশি উইকেট পেয়েছেন শুধু পাকিস্তানের তিন কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম, ওয়াকার ইউনিস ও ইমরান খান। ইংলিশ কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে এসেক্সের হয়ে খেলতে গিয়ে ২০১২ সালে স্পট-ফিক্সিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ হন কানেরিয়া। প্রথমে অভিযোগ অস্বীকার করলেও ২০১৮ সালে অভিযোগ স্বীকার করে নেন।
৩৯ বছর বয়সী কানেরিয়ার মতে দুর্দান্ত সাবেক ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলী আইসিসির শীর্ষ পদের জন্য আদর্শ এক প্রার্থী, ‘সৌরভ গাঙ্গুলী অসাধারণ এক ক্রিকেটার ছিলেন। তিনি মূল সুরটা (ক্রিকেটের) বুঝতে পারেন। আইসিসির সভাপতি পদে তার চেয়ে ভালো প্রার্থী আর নেই। গাঙ্গুলী দারুণভাবে ভারতকে নেতৃত্ব দিয়েছেন, সেই ধারাটা বয়ে নিয়ে গেছেন  এমএস ধোনি ও বিরাট কোহলি। তিনি বর্তমানে বিসিসিআই সভাপতি এবং আমি বিশ্বাস করি আইসিসির প্রধান হলে  ক্রিকেটকে আরও এগিয়ে নিতে পারবেন।’
কানেরিয়া এমনও মনে করেন আইসিসির সভাপতি হতে পাকিস্তানের সমর্থনও দরকার নেই সৌরভ গাঙ্গুলীর, ‘নিজের যোগ্যতাবলেই তিনি এগিয়ে থাকবেন। আমার মনে হয় না পিসিবির সমর্থনের প্রয়োজন তার লাগবে।

No comments

Powered by Blogger.