প্রস্তুতির জন্য ৬ সপ্তাহ চান জেমি ডে

সম্প্রতি বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ ফুটবলের বাছাইপর্বের নতুন তারিখ প্রস্তাব করা হয়েছে বাংলাদেশের। এর পর থেকেই খুব তৎপর জাতীয় দলের কোচ জেমি ডে।
এমনিতে নিয়মিতই ফুটবলারদের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ রেখে চলেছেন। করোনাকালে বর্তমানে অবস্থান করছেন ইংল্যান্ডে। এই পরিস্থিতিতেও শিষ্যদের ফিটনেস ধরে রাখতে নানা ধরনের নির্দেশনাও দিয়ে যাচ্ছেন। কারণ বাছাইপর্বের চারটি ম্যাচ এখনও বাকি। সেজন্য প্রয়োজন প্রস্তুতির। তাই একটা পরিকল্পনাও করে রেখেছেন তিনি।
বাছাইপর্বে আগামী ৮ ও ১৩ অক্টোবর হবে দুটি ম্যাচ। প্রথমটি আফগানিস্তান ও পরেরটি কাতারের বিপক্ষে। এরপর ১২ ও ১৭ নভেম্বর যথাক্রমে ভারত এবং ওমানের বিপক্ষে। ডে তাই পর্যাপ্ত সময় নিয়েই মাঠে নামতে চাইছেন। এর মধ্যেই আবার বাফুফের সঙ্গে তার চুক্তির মেয়াদ বাড়ানো নিয়ে কাজ চলছে। চুক্তির দ্বারপ্রান্তে দু’পক্ষই। তবে এসবের মাঝেই শিষ্যদের নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছেন জাতীয় দলের ইংলিশ এই কোচ।
বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন প্রস্তুতি নিয়ে তার পরিকল্পনার কথা, ‘অনেক দিন ধরেই ফুটবলাররা খেলার মধ্যে নেই। এক দিক দিয়ে তারা অনেক দিন বিশ্রামও পাচ্ছে। যেহেতু বিশ্বকাপ বাছাইয়ের তারিখ প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে। তাই আমি মনে করি এর প্রস্তুতির জন্য অন্তত পক্ষে পাঁচ থেকে ছয় সপ্তাহ সময় প্রয়োজন।’
প্রাথমিক দলে ৩৫ জনের বেশি খেলোয়াড়কে ডাকা হতে পারে। ডের ইচ্ছা সেরকমই, ‘ঘরোয়া ফুটবলে যারা ভালো করেছে, তাদেরকেই ডাকা হবে। সেই সংখ্যা ৩৫ জনের বেশি হবে। নতুন মুখও দেখা যেতে পারে। তাদের নিয়ে পর্যায়ক্রমে চূড়ান্ত দল হবে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আগে প্রস্তুতি ম্যাচও খেলতে চাই।’
অবশ্য এই সময়ে অনুশীলন ছাড়াও বাড়তি বিষয়ের দিকে খেয়াল রাখা জরুরি বলে মনে করেন এই কোচ, ‘এছাড়া অনুশীলনে সর্বোচ্চ সুবিধা যেন থাকে সেটাও লক্ষ্য রাখতে হবে। এরই মধ্যে খেলোয়াড়দের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আবাসিক ক্যাম্প শুরুর আগে এসব নিয়েও কাজ করতে হচ্ছে।’
June 07, 2020

Post a Comment

[blogger]

যোগাযোগের ফর্ম

Name

Email *

Message *

Theme images by merrymoonmary. Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget