নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁও উপজেলায় বিয়াই বাড়িতে সংঘর্ষে অাহত ২০।

 



সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ উপজেলার হামছাদী ধনপুর গ্রামে বিয়াই বাড়িতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। 

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর)  এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুপক্ষই পাল্টাপাল্টি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, সোনারগাঁও উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের হামছাদী ধনপুর গ্রামের নাসির উদ্দিনের ছেলে বশির মিয়ার সঙ্গে মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার বাউশিয়া গ্রামের ফজলুর রহমানের মেয়ে ফাতেমা আক্তারের গত তিন মাস আগে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে ফাতেমা আক্তার তার স্বামী বশির মিয়ার বাড়িতেই বসবাস করছিলেন। সম্প্রতি ফাতেমা আক্তারকে বাড়িতে ফিরিয়ে নিতে ছেলের বাড়িতে আসেন তাঁর পরিবারের লোকজন। এসময় মেয়ে তাদের বাড়িতে যেতে অনীহা জানালে ছেলের বাড়ির লোকজনও তাকে যেতে দেয়নি। এতে মেয়ের স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে  চলে যান।

এদিকে তাদের সঙ্গে মেয়েকে যেতে না দেওয়ায় মেয়ের স্বজনরা হামছাদী এলাকায় তাদের আত্মীয় স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে মঙ্গলবার ছেলের বাবার বাড়িতে যায়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে ঝরিয়ে পড়ে।

 সংঘর্ষে ছেলের পক্ষের দুলাল মিয়া, শান্ত, বশির মিয়া, মোক্তার হোসেন, মিজানুর রহমান, হৃদয়, অনিক মিয়া, হাজেরা বেগম, মেহেরুন আক্তার এবং মেয়ের পক্ষের শাহাবুদ্দিন, আল আমিন, হৃদয় মিয়া, জহির হোসেন, আবু বকর মারাত্মকভাবে আহত হন।

 আহতদের উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আহতদের মধ্যে দুলাল মিয়া, শান্ত ও আবু বকরের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোনারগাঁও থানায় উভয়েই লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।


এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, থানায় দুপক্ষের লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


এসএস/বি

No comments

Powered by Blogger.