নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ের চাঞ্চল্যকর এনজিও কর্মী হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার।






 

সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ের চাঞ্চল্যকর এনজিও কর্মীকে গলাকেটে হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার।

 শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা জেলার খিলগাঁও থানাধীন পশ্চিম নন্দীপাড়া এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে হান্নান(২৫)’কে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, মোঃ হান্নান নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ থানাধীন বারদী ইউনিয়নের মিশ্রীপাড়া গ্রামের মোঃ শামসুদ্দিনের ছেলে। তার স্ত্রী শারমিন আক্তার এনজিও প্রতিষ্ঠান ব্যুরো বাংলাদেশ (বারদী শাখা) হতে ৫০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন যা সাপ্তাহিক ১,২৫০ টাকা হারে কিস্তি পরিশোধ করে আসছিল। ঘটনার দিন গত ০৬ সেপ্টেম্বর নিহত এনজিও কর্মী ব্যুরো বাংলাদেশ,বারদী শাখার প্রোগ্রাম অর্গানাইজার মোঃ সাজিদুর রহমান পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী কিস্তির টাকা আদায়ের উদ্দেশ্যে হান্নানের বসত বাড়িতে যান।সেখানে কিস্তির টাকা নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ধৃত আসামী মোঃ হান্নান পুর্ব-পরিকল্পনা মোতাবেক তোষকের নিচে রাখা ধারালো ছুরি দিয়ে এনজিও কর্মী সাজিদুর রহমানকে জবাই করে নিহতের রক্তাক্ত দেহ কক্ষের খাটের উপরে ফেলে কৌশলে পালিয়ে যায়।সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে এনজিও কর্মী সাজিদুর রহমান এর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে।

এই ঘটনায় নিহত এনজিও কর্মীর সহকর্মী ব্যুরো বাংলাদেশ, বারদী শাখার ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মোঃ শামীম মিয়া বাদী হয়ে ঐদিনই সোনারগাঁও থানায় পেনাল কোড আইনের ৩০২/৩৪ ধারায় একটি নিয়মিত হত্যা মামলা দায়ের করেন,যার মামলা নং- ১১(০৯)২০।

মামলা হওয়ার পর থেকে ধৃত আসামী মোঃ হান্নান গা ঢাকা দিয়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পালিয়ে বেড়ায়। র‌্যাব কর্তৃক গোয়েন্দা নজরদারী ও গোপন খবরের মাধ্যমে র‌্যাব-১১ এর একটি বিশেষ চৌকশ দল গত ২৫ সেপ্টেম্বর  দিবাগত রাতে ঢাকা জেলার খিলগাঁও থানাধীন পশ্চিম নন্দীপাড়া এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে এজাহারনামীয় প্রধান আসামী মোঃ হান্নান (২৫) কে গ্রেফতার করে।

এর আগে, ঘটনায় জড়িত এজাহারনামীয় ৩নং আসামী মোছাঃ শারমিন আক্তার (২৩)কে গত ০৭ সেপ্টেম্বর কুমিল্লা জেলার মেঘনা থানাধীন টিটিরচর এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছিলো র‌্যাব-১১।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামী মোঃ হান্নান উক্ত হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।আসামীকে সোনারগাঁও থানায় সোপর্দ করা হইয়াছে।

No comments

Powered by Blogger.