নারায়ণগঞ্জে দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ,আটক ২।


 সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

  নারায়ণগঞ্জ বন্দরে দুই বন্ধু মিলে দুই শিক্ষার্থীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে। 

এ ব্যাপারে অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ দুই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার ও দুই লম্পটকে গ্রেফতার করেছে।
মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ধর্ষণের শিকার দুই শিক্ষার্থী নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুরুন্নাহার ইয়াসমিমের আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেন।
ধর্ষণের শিকার দুই শিক্ষার্থীর বয়স ১৩ ও ১৪ বছর হবে। তাদের একজন স্থানীয় একটি মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে আরেকজন স্কুলের ৭ম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। তারা সম্পর্কে মামাতো ফুফাতো বোন।
ধর্ষকরা হলেন- নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ফুলহর এলাকার জয় মিয়ার ছেলে রিফাত (১৯) ও একই এলাকার রমিজ উদ্দিন রমু মিয়ার ছেলে রিফাদ (২০)।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার গোদনাইল এলাকার দুই বোনের সঙ্গে গত দুইমাস আগে কোনো এক বিয়ের অনুষ্ঠানে লম্পটের সাথে তাদের পরিচয় হয়।
সেই থেকে তার মধ্যে ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ অব্যাহত ছিল। এরপর মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তারা ২১ সেপ্টেম্বর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ২ বোনকে নবীগঞ্জে আসতে বলে।
তারা ১৫০০ টাকায় বন্দর নবীগঞ্জের একটি বাড়িতে ঘরভাড়া নিয়ে উঠেন। সেখানেই দুই বন্ধু মিলে দুই বোনকে ধর্ষণ করে, আরও দু’দিন সেখানে বিয়ে ছাড়াই অবস্থান করে।

এরপর দুই শিক্ষার্থীকে জয় মিয়ার ছেলে রিফাতের মা হাওয়া বেগমের কাঁচপুরের বাড়িতে রেখে আসে । সেখানে রেখে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। মেয়ের পরিবারের লোকজন দুই লম্পট রিফাত ও রিফাদকে ফোন করে তাদের তথ্য জানতে চাইলে তারা কোনো তথ্য না দিয়ে নানাভাবে টালবাহানা করে।
এই ব্যাপারে আমরা থানায় অভিযোগ করলে, ঐ রাতেই পুলিশ নবীগঞ্জ থেকে আমার মেয়ে ও ভাগ্গিকে উদ্ধার সহ দুই লম্পটকে গ্রেফতার করে।

বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ ফকুরুদ্দীন বলেন ধর্ষন ঘটনায় থানায় দুটি পৃথক মামলা হয়েছে। দুইজন আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হইয়াছে।
ভিক্টিমদের ডাক্তারি পরিক্ষার পর ২২ ধারায় আদালতে সোর্পদ করা হইয়াছে।
বাকী আসামীদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


এসএস/বি

Post a Comment

[blogger]

যোগাযোগের ফর্ম

Name

Email *

Message *

Theme images by merrymoonmary. Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget