দেশীয় অস্ত্রসহ বন্দর কেওঢালায় ৫ সন্ত্রাসী গ্রেফতার। ।

 




সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

 নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানার কেওঢালা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৫জন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ । 

বৃহস্পতিবার ( ১৭সেপ্টেম্বর ) বিকালে র‌্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( সিপিএসসি আদমজীনগর) মোঃ জসিম উদ্দীন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মোঃ আমিনুল ইসলাম @ শাহিন (৩৭), মোঃ সাদেক হোসেন (৩০), শ্রাবণ আকন (১৮), মোঃ ইয়াছিন আহম্মেদ @ জুনায়েদ (২২) , মোঃ আশিকুর রহমান শিকদার @ শাকিব (২২)। 

বৃহস্পতিবার ( ১৭ সেপ্টেম্বর) রাত দেড়টায় গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ (সিপিএসসি, নারায়ণগঞ্জ) অভিয়ান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে। এ সময় তাদের দখল হতে ০২টি চাইনিজ কুড়াল, ২টি স্টীলের চাকু, স্টীলের তৈরি ২টি ছুরি, ১টি রামদা, ১টি তরবারী, ১টি পিস্তলের কভার, ১টি হাসুয়া এবং ৩০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় গ্রেফতারকৃত আসামীরা দুর্ধর্ষ পেশাদার সন্ত্রাসী, অপহরণকারী ও চাঁদাবাজ চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ পরষ্পর যোগসাজশে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে সংঘবদ্ধভাবে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়, মাদক ব্যবসাসহ নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছিল। গ্রেফতারকৃত দুষ্কৃতিকারীদের অপরাধ সংঘটনের সুনির্দিষ্ট তথ্যসহ কিছু ছবি পাওয়ার পর দীর্ঘদিন যাবৎ গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে এই সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী চক্রকে শনাক্ত করে র‌্যাব। 

 র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকস দল ১৭ সেপ্টেম্বর রাত ০১.৩০ টায় বন্দর থানাধীন কেওঢালা এলাকা হতে সংঘবদ্ধ অবস্থায় ০৫ জন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ আমিনুল ইসলাম, শাহিন এর নেতৃত্বে একটি কিশোর গ্যাং চক্র মদনপুর এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসাসহ নানা ধরনের অপরাধমূলক কাজ করে আসছিল এবং তার বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।


এসএস/বি

No comments

Powered by Blogger.