September 2020
1 SPORTS 1 TECHNOLOGY 2 অজ্ঞাত লাশ-সোনারগাঁও 4 অনিয়ম 1 অনিয়ম- শহীদ মিনার নির্মাণ 1 অনুদান 1 অপমৃত্যু-সোনারগাঁও 1 অপরাদ 39 অপরাধ 18 অপরাধ দমন 1 অপরাধ দমনে ভ্রাম্যমান আদালত 22 অপরাধ সোনারগাঁ 1 অফিস উদ্ধোধন 1 অভিনন্দন 1 অর্জন 1 অস্র উদ্ধার 3 আইনশৃঙ্খলা 12 আড়াইহাজার 4 আদালত 1 আন্তর্জাতিক 1 আশ্চার্য 1 ইফতার ও মাক্স বিতরণ-সোনারগাঁও 2 ঈদ উপহার-সোনারগাঁও 1 ঈদ কেনাকাটা -সোনারগাঁও 5 ঈদ শুভেচ্ছা 1 উদ্ধার 1 উদ্যোক্তা 6 উন্নয়ন 2 কক্সবাজার 1 কারাগার নারায়ণগঞ্জ। 2 কুড়িগ্রাম 3 কৃষকের ভাবনা 1 খুন 6 খেলাধুলা 2 গ্রেফতার -নারায়ণগঞ্জ 1 গ্রেফতার -সোনারগাঁও 3 চট্টগ্রাম 1 চাকরি 1 চাঁদপুর 2 চিকিৎসা 1 চুরি 2 জন দূর্ভোগ 1 জনসেবা ও পুলিশ 1 জনস্বার্থ 3 জন্ম উৎসব 1 জন্মদিন 3 জন্মশতবার্ষিকী পালন 96 জাতীয় 1 জাতীয়। 1 জালিয়াতি 1 টাঙ্গাইল 1 ঢাকা 1 তথ্য 1 তদন্ত 4 ত্রাণ বিতরণ 1 ত্রাণ বিতরন-বন্দর 1 দুর্যোগ 6 দূর্ঘটনা 1 ধর্ষন 1 নগদ অর্থসহায়তা 9 নারায়ণগঞ্জ 1 নারায়ণগঞ্জ সদর 39 নারায়াণগঞ্জ 1 নারায়াণগঞ্জে অস্রের লাইসেন্স। 4 নির্বাচন 3 নির্বাচন সোনারগাঁও 1 নৌকাডুবি 1 পরিচ্ছন্নতা 4 প্রতিবাদ 1 প্রতিবাদ সভা 1 প্রতিবাদ সোনারগাঁ 4 প্রধানমন্ত্রীর উপহার-সোনারগাঁও 2 ফতুল্লা নারায়ণগঞ্জ 1 বন্দর মডেল প্রেসক্লাব 3 বন্দর-নারায়ণগঞ্জ 1 বন্দর(নারায়ণগঞ্জ) 2 বহিঃবিশ্ব 2 বহিষ্কার 1 বাক্ষণবাড়িয়া 1 বানিজ্য 1 বাল্য বিবাহ বন্ধ 1 বিট পুলিশিং সোনারগাঁ 1 বিশ্ব 1 বিশ্ব বাজার 1 ব্যবসা বানিজ্য 1 ভিত্তিপ্রস্তর 1 ভূয়া কর্মকর্তা গ্রেফতার 1 ভ্রাম্যমান আদালত-সোনারগাঁও 1 মাদক উদ্ধার-নারায়ণগঞ্জ 1 মাদারীপুর 1 মানবতার সেবা 1 মানবন্ধন 1 মানবিকতা 1 মানিকগঞ্জ 1 মামলা 1 মাস্ক বিতরণ 1 মিডিয়া 2 মিডিয়া সংবাদ 3 মৃত্যু 1 রক্তদান 6 রাজনীতি 1 রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন 1 রূপগঞ্জ 1 র‌্যাব নারায়ণগঞ্জ 2 র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার 2 লকডাউন 3 শোক 4 শোক বার্তা 1 শোখ নিউজ 1 সংবাদ সম্মেলন 1 সভা-প্রতিবাদ 2 সারা বাংলা 3 সারাবাংলা 1 সিদ্ধিরগঞ্জ 1 সিনেমা 1 সেবা 3 সোনারগাঁ 1 সোনারগাঁ যাদুঘর 103 সোনারগাঁও 1 সোনারগাঁও জার্নালিষ্ট ক্লাব-নারায়ণগঞ্জ 1 সোনারগাঁও থানা পুলিশ 1 সোনারগাঁও থানা মসজিদ 2 সোনারগাঁও থানা(নারায়ণগঞ্জ) 2 সোনারগাঁও পৌর নির্বাচন 1 সোনারগাঁও মানবন্ধন 15 সোনারগাঁও রাজনীতি 3 সোনারগাঁও। 1 সোমারগাঁও 1 স্বাস্থ্য 1 স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা 1 হত্যার হুমকি


 সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

  নারায়ণগঞ্জ বন্দরে দুই বন্ধু মিলে দুই শিক্ষার্থীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে। 

এ ব্যাপারে অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ দুই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার ও দুই লম্পটকে গ্রেফতার করেছে।
মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ধর্ষণের শিকার দুই শিক্ষার্থী নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নুরুন্নাহার ইয়াসমিমের আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেন।
ধর্ষণের শিকার দুই শিক্ষার্থীর বয়স ১৩ ও ১৪ বছর হবে। তাদের একজন স্থানীয় একটি মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে আরেকজন স্কুলের ৭ম শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। তারা সম্পর্কে মামাতো ফুফাতো বোন।
ধর্ষকরা হলেন- নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ফুলহর এলাকার জয় মিয়ার ছেলে রিফাত (১৯) ও একই এলাকার রমিজ উদ্দিন রমু মিয়ার ছেলে রিফাদ (২০)।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার গোদনাইল এলাকার দুই বোনের সঙ্গে গত দুইমাস আগে কোনো এক বিয়ের অনুষ্ঠানে লম্পটের সাথে তাদের পরিচয় হয়।
সেই থেকে তার মধ্যে ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ অব্যাহত ছিল। এরপর মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তারা ২১ সেপ্টেম্বর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ২ বোনকে নবীগঞ্জে আসতে বলে।
তারা ১৫০০ টাকায় বন্দর নবীগঞ্জের একটি বাড়িতে ঘরভাড়া নিয়ে উঠেন। সেখানেই দুই বন্ধু মিলে দুই বোনকে ধর্ষণ করে, আরও দু’দিন সেখানে বিয়ে ছাড়াই অবস্থান করে।

এরপর দুই শিক্ষার্থীকে জয় মিয়ার ছেলে রিফাতের মা হাওয়া বেগমের কাঁচপুরের বাড়িতে রেখে আসে । সেখানে রেখে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। মেয়ের পরিবারের লোকজন দুই লম্পট রিফাত ও রিফাদকে ফোন করে তাদের তথ্য জানতে চাইলে তারা কোনো তথ্য না দিয়ে নানাভাবে টালবাহানা করে।
এই ব্যাপারে আমরা থানায় অভিযোগ করলে, ঐ রাতেই পুলিশ নবীগঞ্জ থেকে আমার মেয়ে ও ভাগ্গিকে উদ্ধার সহ দুই লম্পটকে গ্রেফতার করে।

বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ ফকুরুদ্দীন বলেন ধর্ষন ঘটনায় থানায় দুটি পৃথক মামলা হয়েছে। দুইজন আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হইয়াছে।
ভিক্টিমদের ডাক্তারি পরিক্ষার পর ২২ ধারায় আদালতে সোর্পদ করা হইয়াছে।
বাকী আসামীদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


এসএস/বি

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলার ৩নং ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য পদে লড়তে চান বাড়িমজলিশ গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক গরিবের বন্ধু হাজী মোহাম্মদ মহসিন প্রধান।

জনাব মহসিন প্রধান হচ্ছে সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়িমজলিশ গ্রামের সৎ ও সুযোগ্য ব্যক্তি, তিনি সর্বদা মানুষের কল্যাণময় কাজে নিয়োজিত থাকেন।

হাজী মহসিন ৩নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের মানুষের সাথে সম্পর্ক বজায় রেখেই শৈশব কৈশর পেরিয়ে এসেছেন,এবং সর্বস্তরের মানুষের বিপদে আপদে পাশে থেকেই সার্বিক সহযোগিতা করছেন বলে জানান এলাকাবাসী। স্থানীয়রা আরো জানান, মহসিন প্রধান মাদক ও সন্ত্রাস বিরোধী সকল কাজে সামনের সারিতে থেকেই নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন।

মহসিন প্রধান জানান, তিনি নির্বাচিত হলে এলাকার পানি নিষ্কাশন ও ড্রেনের ব্যবস্থা করবেন এবং এলাকা থেকে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক নির্মূল সহ সরকারের যত উন্নয়ন মানুষের দোরগোড়ায় দ্রুত পৌছে দিবেন। তাই আমার বিশ্বাস মোগরাপাড়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা আগামি নির্বাচনে ইউপি সদস্য পদে আমাকেই নির্বাচিত করবেন।

স্থানীয়রাও বললেন একই কথা। যদি মহসিন প্রধান জনপ্রতিনিধি পদে দাড়ান, আমাদের স্বার্থেই আমরা তার পাশে থাকবো এবং ভোটদিয়ে জয়যুক্ত করবো।


এসএস/বি

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

সোনারগাঁও পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বিকালে পৌরসভার খাসনগর দিঘির পাড়ে অবস্থিত গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেইস) প্রাঙ্গনে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। 

সোনারগাঁও পৌরসভা জাতীয় পার্টির সভাপতি এম এ জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার সহধর্মিণী সোনারগাঁও উপজেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ডালিয়া লিয়াকত।

সম্মেলন সভাপতি হাজী মহিউদ্দিনকে সভাপতি ও মোঃ হাসান মিয়াকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭ নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

অন্যান্যদের মধ্যে সহ সভাপতি মোঃ রাজু আহমেদ, ডাক্তার কাদির, ডাঃ সাইফুল ইসলাম, জসিমউদদীন মোল্লা, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ শ্যামল মিয়া, যুগ্ন সম্পাদক মোঃ বুলবুলের নাম উল্লেখ করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাইম ইকবাল, পৌরসভা জাতীয় পার্টির নেতা রেজাউল করিম, গরীবে নেওয়াজ, লিয়াকত আলী, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টিরকেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক জাবেদ রায়হান, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজকল্যাণ সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু, সোনারগাঁও পৌরসভার কাউন্সিলর দুলাল মিয়া, জাহেদা আক্তার মনি, পারভীন আক্তার, শাহজালাল মিয়া,নারী নেত্রী জাহানারা বেগম, পৌরসভা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব শফিকুল ইসলাম শফি, মিলন মিয়া,মোঃ মোক্তার হোসেন, মজিবুর রহমান, জহির,মোঃ শহীদ,ফজলুল হক মাস্টার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বক্তারা আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে প্রধান অতিথি ডালিয়া লিয়াকত কে মেয়র প্রার্থী করার জোর দাবি জানান।


এসএস/বি

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে করোনাকালীন ও করোনা পরবর্তী সময়ে সনমান্দী ইউনিয়নের প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়ন নিয়ে করনীয় শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত । 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আতিকুল ইসলাম । 

সভাপতিত্বে করেন ,সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ। 

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার নিখিল চন্দ্র বিশ্বাস, খন্দকার আমিনুল হক সাবেক চেয়ারম্যান সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার প্রিন্সেস হাফেজা জামাল হেলালী,বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম ভূইয়া এবং সনমান্দী ইউনিয়নের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, সভাপতি ও ইউপি সদস্য প্রমূখ ।


এসএস/বি


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার উত্তর লক্ষণখোলা এলাকা হতে মোঃ ইমরান হোসেন বাবু (৩৬) এবং মোছাঃ সানজিদা আক্তার(২৪) নামক দুই অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। 

২৮ সেপ্টেম্বর (সোমবার)সন্ধ্যায় তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় সিদ্ধিরগঞ্জ হতে ৩দিন আগে অপহৃত হওয়া দুই বছরের শিশুকে উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার(২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে লেঃ কর্ণেল (অধিনায়ক) খন্দকার সাইফুল আলম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তিনি জানান, গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে মোঃ মিজানুর রহমান (৩২) নামক এক ব্যক্তি র‌্যাব-১১, নারায়ণগঞ্জ বরাবর একটি অভিযোগ করেন যে, গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে কতিপয় অপহরণকারীরা সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মিজমিজি পাইনাদী এলাকায় তাদের ভাড়া বাড়ি হতে তার ২ বছর বয়সী শিশুপুত্রকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। মোবাইল ফোনে অপহরণকারী তার শিশুপুত্রকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে তার কাছে মোটা অঙ্কের মুক্তিপণ দাবি করে। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ কর্তৃক গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে গোপন অনুসন্ধান শুরু করে এবং সম্ভাব্য কয়েকটি স্থানে অভিযানও চালায়। সর্বশেষ ২৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বন্দর থানাধীন উত্তর লক্ষণখোলা এলাকা হতে মোঃ ইমরান হোসেন বাবু (৩৬) এবং মোছাঃ সানজিদা আক্তার(২৪) নামক দুই অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে। 

গ্রেফতারকৃত আসামীর তথ্যমতে মোঃ ইমরান হোসেন বাবুর বোনের ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত ভিকটিম শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ ইমরান হোসেন বাবু নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানার লক্ষণখোলা এলাকার মৃত মাজেদ হোসেনের ছেলে এবং সানজিদা আক্তার মোঃ ইমরান হোসেন বাবু’র স্ত্রী।

গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়কে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, অপহৃত ভিকটিম শিশুটির পিতা মোঃ মিজানুর রহমান পেশায় একজন পিকআপ চালক। ভিকটিমের পরিবার ও অপহরণকারীরা প্রায় এক বছর ধরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মিজমিজি পাইনাদী এলাকায় পাশাপাশি ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। পাশাপাশি বাসায় বসবাস করলেও ভিকটিমের পরিবার ও অপহরণকারীদের মধ্যে প্রতিবেশি হিসেবে কোন পরিচয় বা ঘনিষ্ঠতা ছিল না। ভিকটিমের পিতা মোঃ মিজানুর রহমান পিকআপ গাড়ী চালানোর উদ্দেশ্যে বাহিরে থাকা অবস্থায় তার স্ত্রী সাংসারিক কাজে ব্যস্ত থাকার সুযোগ কাজে লাগিয়ে অজ্ঞাতসারে অপহরণকারীরা স্বামী-স্ত্রী পরষ্পর যোগসাজশে মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশ্যে কৌশলে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দে বিকাল ০৪.০০ ঘটিকায় শিশুটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানাধীন উত্তর লক্ষণখোলা দালাল বাড়ী জামে মসজিদের পাশে অভিযুক্ত মোঃ ইমরান হোসেন বাবুর বোনের ভাড়া বাসায় জিম্মি করে রাখে। অপহরণকারীরা ভিকটিম শিশুটিকে নির্যাতন করে শিশুর মা-বাবাকে মোবাইল ফোনে কান্নার আওয়াজ শুনিয়ে মোটা অঙ্কের মুক্তিপণ দাবি করে। এরপর তার বোনের ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত ভিকটিম শিশুটিকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা ভিকটিম শিশুটিকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা এবং আটকে রেখে শারিরীক নির্যাতন করার কথা স্বীকার করে। 

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।


এসএস/বি


নিজস্ব প্রতিবেদক (ভোলা):

দ্বীপ জেলা ভোলার চরফ্যাশনে এক নারীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে পুরুষাঙ্গ হারিয়েছে মোঃনাঈম (৩৫) নামের যুবক।

 রোববার রাতে স্থানীয় ভাষানচর গ্রামের এক জেলের স্ত্রী ২ সন্তানের জননীর ঘরে প্রবেশ করে তাকে ধর্ষণচেষ্টা করে যুবক। এসময় ২৬ বছর বয়সি নারী ব্লেড দিয়ে যুবকের পুরুষাঙ্গ কেটে দেন। রক্তাক্ত অবস্থায় নাঈমকে উদ্ধার করে প্রথমে চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল হাসপাতালে পাঠানো হয়। 

পেশায় মোটরসাইকেল চালক নাঈম রসুলপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ভাষানচর গ্রামের আজম আলী সরদারের ছেলে। ভুক্তভোগী নারী (২৬) জানান, তিনি দুই সন্তানের জননী। তার স্বামী নদীতে মাছ শিকার করেন। স্বামীর পেশার পাশাপাশি নকশিকাঁথা তৈরি করে বিক্রি করেন গৃহবধূ। নাঈম তার স্বামীর বন্ধু। সেই সুবাদে তাদের বাড়ি যাওয়া-আসা করতেন। তিন মাস ধরে গৃহবধূকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন নাঈম। বিষয়টি নিয়ে নাঈমকে বারবার সতর্ক করেছিলেন ওই নারী। 

তিনি বলেন, রোববার রাত ১২টার দিকে ঘর থেকে বের হয়ে বাথরুমে যাই। আমার স্বামী নদীতে মাছ শিকারে যাওয়ায় বাড়ি ফাঁকা ছিল। এ সুযোগে ঘরে ঢুকে খাটের নিচে লুকিয়ে থাকে নাঈম। বাথরুম থেকে এসে ঘরের দরজা বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়ি। হঠাৎ মুখ চেপে ধরে আমার জামা-কাপড় ছিঁড়ে ফেলে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় নাঈম। একপর্যায়ে তার সঙ্গে ধস্তাধস্তি লেগে যায় আমার। উপায় না পেয়ে ধর্ষণ থেকে বাঁচতে খাটের পাশে থাকা সুঁই-সুতার বক্স থেকে ব্লেড নিয়ে নাঈমের পুরুষাঙ্গ কেটে দেই। তখন নাঈম চিৎকার দিলে স্থানীয়রা ছুটে আসে। পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। 

চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা শোভন কুমার বশাক বলেন, রোববার রাত পৌনে ৩টার দিকে নাঈমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বরিশাল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রসুলপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য (মেম্বার) এমদাদুল হক মিঠু বলেন, নাঈম এর আগেও এলাকার কয়েকজন নারীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেছিল। ওসব ঘটনায় কয়েকবার তাকে জরিমানা করা হয়। নাঈম এলাকার চিহ্নিত লম্পট। ওই নারীর ঘরে ঢুকে ধর্ষণের চেষ্টা করায় তার পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়া হয়।

গৃহবধূ আরও বলেন, এ ঘটনার পর থেকে নাঈমের পরিবার ও স্থানীয় কয়েকজন মাদকসেবী বিভিন্নভাবে আমাকে ভয় দেখাচ্ছেন। এতে আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।

 

এসএস/বি


    


September 28, 2020

 






নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজন এবং শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের প্রতিনিধি সভার মধ্যে দিয়ে  মাদার অব হিউম্যানেটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন পালন করেছে মোবারক হোসেন স্মৃতি সংসদ


সোমবার সন্ধ্যায় আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও কেক কাটার মধ্যে দিয়ে এই জন্মদিন পালন করা হয়। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন, আরিফ মাসুদ বাবু, শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের জেলা সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন মেম্বার, আওয়ামী লীগ নেতা আনিসুর রহমান রবিন, ইসহাক মোল্লা, রফিকুল হায়দার বাবু, মোস্তাফিজুর রহমান বাবু সহ যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা।


অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোশাররফ হোসেন বলেন, যত ষড়যন্ত্র হোক না কেন জাতির জনকের কন্যা তার পিতার আদর্শ ও বাংলার মানুষের উন্নয়ন অগ্রগতীতে পিছপা হবে না। অনেকবার শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। মহান আল্লাহ তাকে দেশ ও মানুষের সেবায় বাঁচিয়ে রেখেছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আর কখনো পিছিয়ে যাবে না। আমরা উন্নত আধুনিক আর মানবিক রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের বুকে মাথা উঁচু করে থাকবো ইনশাল্লাহ। 


তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে উপহার দিয়েছেন। আর শেখ হাসিনা সমৃদ্ধ বাংলাদেশ উপহার দিতে চলছেন। তাই শেখ হাসিনার বিকল্প নেই বাংলাকে এগিয়ে নিতে। 

 

অনুষ্ঠান শেষে শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের সোনারগাঁ উপজেলা ও সোনারগাঁ পৌরসভার আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে এবং ৪৫ দিনের মধ্যে ইউনিয়ন ওয়ার্ডের পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়। 



 




সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

 জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ কন্যা,স্বাধীন বাংলাদেশে ’৭৫ পরবর্তী সময়ে ইতিহাসের সবচেয়ে সফল রাষ্ট্রনায়ক,আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন পালন ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ। 

সভাপতির বক্তব্যে আব্দুল হাই বলেন,১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর মধুমতি নদী বিধৌত গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গীপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। তার মাতার নাম বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব। তিনি বাবা-মায়ের প্রথম সন্তান। শৈশব কৈশোর কেটেছে টুঙ্গীপাড়ায় নদীর তীরে বাঙালির চিরায়ত গ্রামীণ পরিবেশে, দাদা-দাদির কোলে-পিঠে। তিনি ১৯৮১ সালে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী নির্বাচিত হন। তিনি ৪ বার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। তার দুই সন্তান। ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়। মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুল।

সোমবার ( ২৮ সেপ্টেম্বর) সকালে নগরীর দুই নম্বর রেলগেট সংলগ্ম নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা সভা  অনুষ্ঠিত হয়। নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে দোয়া অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল ও যুগ্ম সম্পাদক ইকবাল পারভেজ। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মিজানুর রহমাস বাচ্চু, সাবেক সংসদ সদস্য হোসনে আরা বাবলী, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিঃ শেখ সাইফুল ইসলামসহ অনেকে। পরে নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন।


এসএস/বি




 









সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে নেত্রীকে শুভকামনা ও অফুরন্ত শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সোনারগাঁওয়ের কৃতি সন্তান,  জাপান আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি রনি আমিন মোহাম্মদ।  

তিনি বলেন ‘২৮শে সেপ্টেম্বর দিনটি একটি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ দিন, কারণ ১৯৪৭ সালের এই দিনে প্রাণপ্রিয় নেত্রী ও আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জন্ম গ্রহণ করেন।

তাঁর সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত, সাহসী নেতৃত্ব ও কার্যকরী পরিকল্পনার কারনেই দেশে উন্নতির ছোঁয়া লেগেছে। বঙ্গবন্ধু যেমনি ভাবে দেশকে নেতৃত্ব দিয়ে স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, তেমনি শেখ হাসিনা দেশকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে দেশের স্বনির্ভরতা ভিত শক্ত অবস্থানে নিয়ে এসেছেন। শেখ হাসিনা আজ শুধু বাংলাদেশের নেত্রী নন, তিনি এখন বিশ্বনেত্রী হিসেবেও সর্বত্র সমাদৃত।

বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছেন আর বাস্তবায়ন করছেন তারই কন্যা বিশ্ব নন্দিত নেতা বাঙ্গালির আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতীক জননেত্রী শেখ হাসিনা।

দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল করা, দেশে অর্থনৈতিক মুক্তি আনয়ন করা ও ডিজিটাল রাষ্ট্র গঠন সহ মিশন ২০২১ ও রূপকল্প ২০৪১ অর্জন করার ক্ষেত্রে তিনি দীপ্ত পায়ে এগিয়ে যাচ্ছেন।

আর প্রতিটি বাঙালির বুকে এঁকে দিচ্ছেন শান্তির বীজ।

আমি তাঁর দীর্ঘায়ু কামনা করছি।


এসএস/বি


 



মামুন আহমেদ জয়,আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) 

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের খালিয়ারচর জাহানারা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ের নব নির্মিত ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্হাপন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আড়াইহাজার  উপজেলার কালাপাহাড়িয়া  ইউনিয়নের খালিয়ারচর মেইন সড়কের পাশে অবস্থিত জাহানারা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়। 

সাইফুল ইসলাম স্বপন চেয়ারম্যান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম বাবু,সংসদ সদস্য নারায়ণগঞ্জ ২।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, জনাব মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকার চেয়ারম্যান আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ।

 আরো উপস্থিত ছিলেন,মো: আব্দুর বারী চৌধুরী, মো:জজ,মো: মন্জুর হোসেন,ফাইজুল হক ডালিম, সুবল চন্দ্র ঘোষ, কামরুজ্জামান সরকার,সাইদুর রহমান তোতা, মো: সামসুল আলম কামাল, আব্দুল মান্নান,এম ওবায়দুল ইসলাম বাদল,মহিউদ্দিন সরকার, আব্দুল আজিজ প্রধান শিক্ষক জাহানারা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়,স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীগণ।


এসএস/বি

 


মামুন আহমেদ জয়, আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) 

নারায়ণগঞ্জ আড়াইহাজার উপজেলায় একটি এগ্রো ফার্মে ডাকাতি হয়েছে। নৈশ প্রহরীকে বেঁধে ৯ টি ষাড় গরু লুট করেছে ডাকাতদল।

শুক্রবার রাতে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী  ইউনিয়নের দিঘলদী গ্রামের আজাদ খান সোহাগ ও হাসান আল মামুনের মালিকানাধীন আজাদ এগ্রো ফার্মে এ ডাকাতি সংঘটিত হয়। 
ডাকাতেরা এসময় হাত পা বেধে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে দুই নৈশ প্রহরী রফিক ও রিফাতকে মারাত্মক জখম করে।
নৈশ প্রহরীরা জানায়, ১০/১৫ জনের  একদল ডাকাত রাত ২টার দিকে অতর্কিত ট্রাক নিয়ে এসে ফার্মে ঢুকে আমাদের বেঁধে,মেরে আহত করে ফার্মের ৪০টি গরুর মধ্যে ৯টি ষাড় নিয়ে পালিয়ে যায়।এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।  

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ডাকাতি হওয়া গরুগুলো উদ্ধারে কাজ শুরু হয়েছে। ডাকাতদেরও দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।

এসএস/বি






 

সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ের চাঞ্চল্যকর এনজিও কর্মীকে গলাকেটে হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার।

 শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা জেলার খিলগাঁও থানাধীন পশ্চিম নন্দীপাড়া এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে হান্নান(২৫)’কে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, মোঃ হান্নান নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ থানাধীন বারদী ইউনিয়নের মিশ্রীপাড়া গ্রামের মোঃ শামসুদ্দিনের ছেলে। তার স্ত্রী শারমিন আক্তার এনজিও প্রতিষ্ঠান ব্যুরো বাংলাদেশ (বারদী শাখা) হতে ৫০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন যা সাপ্তাহিক ১,২৫০ টাকা হারে কিস্তি পরিশোধ করে আসছিল। ঘটনার দিন গত ০৬ সেপ্টেম্বর নিহত এনজিও কর্মী ব্যুরো বাংলাদেশ,বারদী শাখার প্রোগ্রাম অর্গানাইজার মোঃ সাজিদুর রহমান পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ী কিস্তির টাকা আদায়ের উদ্দেশ্যে হান্নানের বসত বাড়িতে যান।সেখানে কিস্তির টাকা নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ধৃত আসামী মোঃ হান্নান পুর্ব-পরিকল্পনা মোতাবেক তোষকের নিচে রাখা ধারালো ছুরি দিয়ে এনজিও কর্মী সাজিদুর রহমানকে জবাই করে নিহতের রক্তাক্ত দেহ কক্ষের খাটের উপরে ফেলে কৌশলে পালিয়ে যায়।সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে এনজিও কর্মী সাজিদুর রহমান এর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে।

এই ঘটনায় নিহত এনজিও কর্মীর সহকর্মী ব্যুরো বাংলাদেশ, বারদী শাখার ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মোঃ শামীম মিয়া বাদী হয়ে ঐদিনই সোনারগাঁও থানায় পেনাল কোড আইনের ৩০২/৩৪ ধারায় একটি নিয়মিত হত্যা মামলা দায়ের করেন,যার মামলা নং- ১১(০৯)২০।

মামলা হওয়ার পর থেকে ধৃত আসামী মোঃ হান্নান গা ঢাকা দিয়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পালিয়ে বেড়ায়। র‌্যাব কর্তৃক গোয়েন্দা নজরদারী ও গোপন খবরের মাধ্যমে র‌্যাব-১১ এর একটি বিশেষ চৌকশ দল গত ২৫ সেপ্টেম্বর  দিবাগত রাতে ঢাকা জেলার খিলগাঁও থানাধীন পশ্চিম নন্দীপাড়া এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে এজাহারনামীয় প্রধান আসামী মোঃ হান্নান (২৫) কে গ্রেফতার করে।

এর আগে, ঘটনায় জড়িত এজাহারনামীয় ৩নং আসামী মোছাঃ শারমিন আক্তার (২৩)কে গত ০৭ সেপ্টেম্বর কুমিল্লা জেলার মেঘনা থানাধীন টিটিরচর এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছিলো র‌্যাব-১১।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত আসামী মোঃ হান্নান উক্ত হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।আসামীকে সোনারগাঁও থানায় সোপর্দ করা হইয়াছে।

  



নিজস্ব সংবাদদাতাঃ


 নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁও পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে সমাজ সেবক ও তরুণ বিএন পি নেতা এ্যাডঃ সাদ্দাম হোসেন বিএনপি-র সমর্থনে মেয়র পদে নির্বাচন করার ইচ্ছে প্রকাশ করে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন ও সমাজ সেবামূলক কর্মকান্ডে দীর্ঘদিন ধরে তিনি নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন। ফলে সোনারগাঁও পৌর এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে তার একটা নিজ্বস্ব ব্যক্তি ইমেজ তৈরী হয়েছে।আগামী পৌর নির্বাচনে তার বিজয়ের সম্ভবনা অত্যন্ত উজ্জল বলে তিনি মনে করেন। জনসাধারণের কাছে অঙ্গীকার প্রকাশ করে বলেন, বিজয়ী হলে তিনি তার সকল যোগ্যতা ও দক্ষতা দিয়ে সোনারগাঁও  পৌরসভার অবহেলিত জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কাজ করবেন।তিনি বলেন,  তাঁর ব্যক্তিগত কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই, মূত্যুর আগে তিনি সোনারগাঁও পৌরবাসীর সেবা করে যেতে চান।

জানা গেছে, এ্যাডঃ সাদ্দাম হোসেনের জন্ম একটি সমভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে হওয়ায় এলাকায় তার ব্যাপক সামাজিক পরিচিতি রয়েছে, ছাত্র জীবন থেকেই তিনি বিএনপি'র  রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। বিএনপি'র  জাতীয় পর্যায়ে অনেক নেতৃবৃন্দের সঙ্গে তার রয়েছে গভীর যোগাযোগ। একজন উচ্চ শিক্ষিত সৎ,যোগ্য ও ভালো মানুষ হিসেবে তার একটা ব্যক্তি ইমেজ রয়েছে সর্ব মহলে।বর্তমানে তিনি পৌর যুবদলের  আহ্বায়ক ও পৌর বিএনপি'র যুগ্ন আহ্বায়ক।

আগামী নির্বাচনে পৌরসভার থেকে  তিনিই একমাত্র প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন। যে কারণে  অনেক সুবিধেও রয়েছে তার পক্ষে। পৌরবাসীর অভিমত এসব বিবেচনায় এ্যাডঃ সাদ্দাম হোসেন   প্রার্থী হলে তারই বিজয়ী হবার উজ্জল সম্ভবনা রয়েছে। তাকে একজন শক্ত প্রার্থী বলে বিবেচনা করছে অন্যান্য রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা।

তিনি আগামী পৌর নির্বাচনে সকলের দোয়া চান। সোনারগাঁও পৌর বাসীর কাছে ক্লিনম্যান হিসেবে দলমত নির্বিশেষে পৌরবাসীর কাছে তার ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে।

এ ব্যাপারে তরুণ বিএনপি, নেতা এ্যাডঃ সাদ্দাম হোসেন বলেন, আগামী পৌর নির্বাচনে তিনি মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তিনি আরো বলেন, নির্বাচিত হলে তিনি পৌরবাসীকে সঙ্গে নিয়ে পৌরসভায় শিক্ষা বিস্তার, মাদক মুক্ত, শতভাগ স্যানিটেসন, বিশুদ্ধ খাবার পানির সুব্যবস্থা ও  সকলের সমঅধিকার প্রতিষ্ঠাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড গ্রহণের মাধ্যমে সোনারগাঁও  পৌরসভা একটি মডেল পৌরসভায় উন্নীত করবেন। এ জন্য তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী।


এসএস/বি

 


শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ,  

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ে পৌরসভা নির্বাচন ডিসেম্বরে ।এরই মধ্যে এখানে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে,মাঠে নেমেছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। দলীয় মনোনয়ন পেতে এরইমধ্যে অনেকেই জেলা ও কেন্দ্রীয় পর্যায়ে লবিং শুরু করেছেন। প্রচার-প্রচারণায়ও আওয়ামী লীগ এখানে সরব কিন্তু এখনো মাঠে দেখা মেলেনি বিএনপি ও জাতীয়পার্টির। 

সোনারগাঁও পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।নৌকা পেতে মরিয়া বর্তমান মেয়র সাদেকুর রহমান, অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী, আওয়ামী লীগ নেতা গাজী মুজিবুর রহমান, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ সগীর আহমেদ, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ হোসাইন,ছাত্রলীগ থেকে বর্তমানে যুব মহিলালীগ নেতা নাসরিন সুলতানা ঝরা।

জানা গেছে, পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছয়জন। তারা দলীয় মনোনয়ন পেতে এরইমধ্যে জেলা ও কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছেন। পাশাপশি অনেকেই নেতাকর্মী নিয়ে পরিচিত হতে পাড়া-মহল্লা চষে বেড়াচ্ছেন। ব্যানার ফেস্টুন, পোষ্টারিং করে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন।দলীয় সমর্থন নিশ্চিত করতে প্রভাবশালী ও শীর্ষ নেতাদের মন জয় করতে চেষ্টা করছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা।

সোনারগাঁও পৌরসভার বর্তমান পরিষদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ডিসেম্বরে। মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই নির্বাচন করার নিয়ম রয়েছে। এ কারণেই প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ চোখে পড়ার মত।

তবে এখন পর্যন্ত কোন প্রার্থী  প্রচারণা চালাতে মাঠে না থাকায় বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে কি না তা নিয়ে দ্বিধান্বিত পৌর এলাকার ভোটাররা। সোনারগাঁও পৌর যুবদলের আহ্বায়ক  ও সোনারগাঁও পৌর বিএনপি'র যুগ্ন আহবায়ক অ্যাডভোকেট সাদ্দাম হোসেন বলেন, পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি'র অংশগ্রহণ নিয়ে কেন্দ্রীয় কোনো নির্দেশনা এখনো আসেনি। সোনারগাঁও পৌর বিএনপি ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। নির্দেশনা এলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়া হবে।

জাতীয়পার্টি এখনও পর্যযবেক্ষনে আছে,আওয়ামী লীগ কাকে প্রার্থী দেয় দেখার। জাতীয়পার্টির পৌর আহ্বায়ক জামান বলেন,জাতীয়পার্টি এখানে অনেক শক্তিশালী।সম্ভাব্য প্রার্থীও রেডি আছে। নেতা কর্মীরা শুধু দলের নির্দেশনার অপেক্ষায় আছে। 

তবে দল সমর্থন দিলে জাতীয়পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাইম ইকবাল মেয়র পদে প্রার্থী হতে পারেন।

এসএস/বি


 


শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ, 

নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী মোগরাপাড়া ইউনিয়নের দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উন্নয়নে         উল্লেখযোগ্য অগ্রণী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু ।

মোগরাপাড়া ইউনিয়নের হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে এলাকায় নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন তিনি। তার সাথে দলের ভাবমূর্তির উন্নয়ন হয়েছে। অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠণের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক সমাজসেবী আরিফ মাসুদ বাবু।

ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক পরিবারে তাঁর জন্ম। দল হিসেবেও বেছে নিয়েছেন সংগ্রাম ও ঐতিহ্যের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে।ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ। তাঁর মাঝে কোন অহংকার নেই। নিরহঙ্কার এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে আজ মোগরাপাড়া ইউনিয়ন বাসির কাছে প্রিয়।কাজ করছেন নৌকার জন্য। সর্বোপরি কাজ করছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য। বয়সে তরুন হলেও তিনি মনোবল হারাননি। এই সফল মানুষটি দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে প্রতিটি মানুষের বিপদ আপদে ছুটে যান। 

মোগরাপাড়া ইউনিয়নে তিনি একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার ও দানশীল মানুষ হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন। ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের মতে, আমরা দল বা নেতা বুঝিনা, আরিফ মাসুদ বাবু ভাই একজন ভালো মানুষ। আমাদের দু:খ দুর্দশায় তাঁকে সহজেই পাশে পাওয়া যায়।ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ, পরিশ্রমী ও মেধাবী সমাজ সেবক এবং উদীয়মান নেতা হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন। 

আরিফ মাসুদ বাবু মোগরাপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র কিছু দিনের মাথায় তার প্রিয় ইউনিয়নকে উন্নয়নের মাষ্টার প্লানের আওতায় এনে ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন। মেধা,মনন, কর্ম প্রয়াস শ্রম ও অধ্যাবশায়ের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা অর্জনের মধ্য দিয়ে তিনি নিজেকে গড়েছেন এক উজ্জ্বল নক্ষত্রে। এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থেকে তিনি সব সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।

সর্বোপরি গরীব মেহনতী মানুষের প্রকৃত জনদরদী হিসেবে তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু মোগরাপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার উন্নয়নের মহা-পরিকল্পনা গ্রহন করেছেন। গৃহিত পরিকল্পনার আলোকে তিনি একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন।

সামাজিক সচেতনতা এবং মানবিক সেবার অনন্য উদ্যোগ তাকে একজন মানবদরদী ও মহতী মানুষের উচ্চতায় অধিষ্ঠিত করেছে। তিনি এলাকার দরিদ্র জনগোষ্টির উন্নয়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। তিনি এ পর্যন্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তার উন্নয়নসহ স্কুল,মাদ্রাসা,কবরস্থান,মসজিদ,ঈদগাঁমাঠ সংস্কার করে গরীব দু:খী মানুষের মাঝে বয়স্কভাতা,বিধবাভাতা, ১০ টাকা কেজি চাল সঠিকভাবে বিতরণ করেছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করে গ্রাম্য শালিসের মাধ্যমে ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে যাচ্ছেন।

এছাড়াও চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু নির্বাচিত হওয়ার পর নিয়মিত অফিস করছেন এবং স্থানীয় প্রশাসনের সার্বিক তত্বাবদানে প্রতিটি উন্নয়নমূলক কাজ অতি দক্ষতার সাথে সফলভাবে করেছেন যা এখনও চলমান আছে। আগামী দিনে মোগরাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু সততা ও কর্মদক্ষতার সাথে ইউনিয়নে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করে ইউনিয়নকে আধুনিক মডেল হিসেবে গড়ে তুলবেন এমনটাই প্রত্যাশা মোগরাপাড়া ইউনিয়ন বাসীসহ সকলের।

আরিফ মাসুদ বাবু তারুণ্যের প্রতীক।তাঁর কর্মকান্ডে, বয়স ও অভিজ্ঞতা দুটিকেই হার মানিয়েছেন তিনি। মনে হয় তিনি নবীন নন, অনেক প্রবীণ। তার অভিজ্ঞতা রয়েছে অনেক।এগিয়ে যাওয়ার জন্য রয়েছে তার নানা প্রেরণা।

এক কথায় তিনি একজন কর্মঠ ব্যক্তি এটা প্রমাণিত। তাই সাধারনের প্রত্যাশা, সামনে ইউপি নির্বাচনে আবারো তিনি চেয়ারম্যান পদে থাকলে সর্বসাধারণ তথা এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হবে। 


এসএস/বি





  



সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির ১ ও ২ নং ওয়ার্ড কমিটি গঠন করা হইয়াছে।

 ১ নং ওয়ার্ডে ফজলুল হক মেম্বার কে সভাপতি ও আনোয়ার হোসেন কে সাধারণ সম্পাদক এবং ২ নং ওয়ার্ডে সাইফুল মেম্বার কে সভাপতি নির্বাচিত করে সর্বসম্মতি ক্রমে কমিটি গঠন করা হয়।

বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে সনমান্দী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক হাজী মোঃ আবুল হোসেন এর সভাপতিত্বে  ও  সদস্য সচিব হারুন রশিদ মোল্লা মেম্বারে সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টি কার্যনিবার্হী কমিটির সদস্য আবু নাঈম ইকবাল। 

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন  কেন্দ্রীয় জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টি সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু, সনমান্দী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি যুগ্ম আহ্বায়ক ইসরাফিল প্রধান, ফিরোজ আহম্মেদ মেম্বার, মোমেন সরকার মেম্বার, তোতা মিয়া মেম্বার  সহ জাতীয় পার্টি ইউনিয়ন ও বিভিন্ন ওয়ার্ডে নেতৃত্ববৃন্দ।


এসএস/বি


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

সোনারগাঁ পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সন্মেলন  পৌরসভার রাইজদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৩শে সেপ্টেম্বর) বিকেলে শত সহস্র নেতা কর্মীদের উপস্থিতিতে এই সম্মেলন অনুুষ্ঠিত হয়।


সন্মেলনে সর্ব সম্মতিক্রমে মোঃ মজিবর রহমান কে সভাপতি ও শাহ আলম বাপ্পীকে সাধারণ সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট ৪নং ওয়ার্ডের পূর্নাংগ কমিটি গঠন করা হয় ।

 সোনারগাঁ পৌরসভা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক এম এ জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সন্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাইম ইকবাল। 


বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু, পৌরসভা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ আলী, সাবেক কাউন্সিলর গরীব নেওয়াজ,পৌরসভা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব শফিকুল ইসলাম শফি,জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির দফতর সম্পাদক মাহবুবুর রহমান কামাল, জাতীয়পার্টি নেতা হাফেজ মোঃ আলমগীর, জাতীয় পার্টির নেতা মোক্তার হোসেন, ১নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সভাপতি আক্তার হোসেন, ৩নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সভাপতি হাজী হাবিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, জাতীয় পার্টির ৫নং ওয়ার্ডের নেতা মিলন মিয়া, শহিদুল ইসলাম রাজু, আব্দুল্লাহ,লাক মিয়া, খোরশেদ আলম সহ প্রমুখ। 


এসএস/বি



শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎঃ

 পুলিশই জনতা জনতাই পুলিশ' এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মুজিব জন্মশতবার্ষিকীতে পুলিশের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে ‘ওপেন হাউজ ডে’ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে সোনারগাঁও মুক্তিযোদ্ধা কম্পলেক্সে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন,
নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টি এম মোশাররফ হোসেন।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার 'খ' সার্কেল মোঃ খোরশেদ আলম।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন,পুলিশ জনগণের শত্রু নয়,বন্ধু।
পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করে সঠিক সেবা গ্রহণ করুন। পুলিশ জনগণের সেবক হয়েই সবসময় কাজ করছে এবং তা চলমান থাকবে।
ওপেন হাউজডের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে কমিউনিটির সাথে সরাসরি পুলিশের সম্পর্ক রক্ষা।
সামনে ইউনিয়ন ও পৌরসভা নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে যেন অনুুষ্ঠিত হয় তা বাস্তবায়নে আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করবো।
মাদকের বিরুদ্ধে পুলিশের অবস্থান বেশ দৃঢ়।
মাদক,চাঁদাবাজ ও কিশোর অপরাধ মুক্ত সমাজ গড়ে তুলতেই পুলিশ বদ্ধ পরিকর।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ) সার্কেলের মোঃ খোরশেদ আলম বলেন,সোস্যাল মিডিয়া ভাইবার,ইমু,ওয়াটস্আপ এখন মাদকের চেয়েও ভয়ানক নেশা।আপনার সন্তানদের খোঁজ খবর নেন, সোস্যাল মিডয়া থেকে যত সম্ভব দূরে রাখুন।
মাদকের সঙ্গে কোনো আপোষ নেই। 
রাষ্ট্রের নিরাপত্তায় আমরা সর্বধা সজাগ আছি।
আপনাদের নিরাপত্তায়ও যে কোন সহযোগিতা পুলিশ তাৎখানিক সমাধান দিবে।
মাদক বিক্রেতা ও সেবনকারীসহ যে কোনো অপরাধীদের ব্যাপারে তথ্য দেওয়ার জন্য আহ্বান জানান তিনি। 

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ থানা তদন্ত কর্মকর্তা শরীফ আহমেদ, এবং অপারেশন ইন্সপেক্টর রুবেল হাওলাদার,সেকেন্ড অফিসার পন্কজ কান্তি সরকার,
 এছাড়াও জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা,সাংবাদিক, শিক্ষক, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, কমিউনিটি পুলিশিং নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

এসএস/বি

September 23, 2020

 


ফেনী প্রতিনিধিঃ

বাতিল ওয়াবিবাদি বস্তুবাদি গোত্রবাদি সৌদি স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা দিবস ২৩শে সেপ্টেম্বর (১৯৩২) উপলক্ষে বিশ্ব সুন্নী আন্দোলন ও বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লব ফেনী জেলা শাখার এর উদ্যোগে বুধবার এক সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।


বিশ্ব সুন্নী আন্দোলন ও ইনসানিয়াত বিপ্লবের প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা ইমাম হায়াতের নির্দেশনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা আল্লামা শেখ নইমুদ্দিন। সংগঠনের ফেনী জেলার সভাপতি আল্লামা গোলাম সরওয়ারের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতা আল্লামা হাসান আবরার, মাওলানা মহিউদ্দিন কাজল, আল্লামা লুৎফুর রহমান লিটন, মাওলানা ফখরুদ্দিন, মাওলানা দেলোয়ার আহসান, মাওলানা মাঈন উদ্দিন, মোশারফ হোসেন মাসুদ, তাহেরুল ইসলাম, আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।


নেতৃবৃন্দ বলেন, মুমিনের প্রাণকেন্দ্র কেবলাভূমি আল-আরবে ঈমান বিনাশী, দ্বীন বিকৃতিকারী, অধিকার-স্বাধীনতা হরণকারী, দ্বীনের মহানিদর্শন পবিত্র মাজার শরীফ সমূহ ধ্বংসকারী, উগ্রবাদি জংগীবাদি মুলুকিয়তের উৎস বাতিল ওয়াবিবাদি বস্তুবাদি গোত্রবাদি সৌদি স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠা দিবস ২৩শে সেপ্টেম্বর (১৯৩২) সকল ঈমানদার এবং মানবতা ও গণতন্ত্রে বিশ্বাসী সকল মানুষের জন্য আঁধার দিবস। 


নেতৃবৃন্দ বলেন, একক ধর্মের নামে অধর্ম সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ও বস্তুবাদি গোত্রবাদি জাতীয়তাবাদি চেতনা এবং তদভিত্তিক একক গোষ্ঠীবাদি স্বৈররাষ্ট্র যেমন স্রষ্টাদ্রোহী অপরাধ ও ধর্মের নীতি আদর্শের বিপরীত তেমনি জীবনের শত্রু ও মানবতা ধ্বংসের মূল হাতিয়ার।


নেতৃবৃন্দ বলেন, সত্যের মুক্তপ্রবাহ ও জীবনের স্বাধীনতা এবং মানবতার মুক্তির একমাত্র পথ আল্লাহতাআলার মহান রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম প্রদত্ত সব মানুষের নিরাপত্তা-অধিকার-মালিকানা ভিত্তিক সর্বজনীন মানবতার রাষ্ট্র ও মানবিক সাম্যের ভিত্তিতে মুক্ত জীবনের অখন্ড দুনিয়া খেলাফতে ইনসানিয়াত (authority of life & state & world of universal humanity)।


নেতৃবৃন্দ সমাবেশে সকল মিথ্যার উৎস নাস্তিক্যউদ্ভূত বস্তুবাদি চেতনা বর্জন করে জীবনের সত্য ও মানবসত্তা রক্ষা করুন এবং সকল গোষ্ঠীবাদি অপরাজনীতি ও গোষ্ঠীবাদি রাষ্ট্রব্যবস্থা পরিবর্তন করে মানবতার রাজনীতি ও মানবতার রাষ্ট্র গড়ে তোলার লক্ষ্যে ইনসানিয়াত বিপ্লবে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

 নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁও উপজেলার আষাঢ়িয়ারচর এলাকা থেকে ১১ হাজার ৫০০ পিস ইয়াবা আটক করেছে র‌্যাব ১১। সেই সাথে একটি ক্যাভার্ড ভ্যানের ড্রাইভার ও হেলপারকেও আটক করা হইয়াছে।জব্দ করা হয় মাদক ব্যবসার কাজে ব্যবহৃত কাভার্ড ভ্যানটি।

আটককৃতরা হলেন মাইন উদ্দিন (৪০) ও মাসুদ রানা (৩৩)। 

২১ সেপ্টেম্বর সোমবার রাতে সোনারগাঁয়ের আষাঢ়িয়ারচর এলাকায় বিসমিল্লাহ ফিলিং ষ্টেশনের সামনে পাকা রাস্তার উপর চেকপোস্ট স্থাপন করে কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী একটি ক্যাভার্ড ভ্যান তল্লাশী করে ১১,৫০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ০২টি মোবাইল ফোন জব্দ করে র‌্যাব ১১।

২২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার,র‌্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সিপিএসসি আদমজীনগর) মোঃ জসিম উদ্দীন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

 তিনি জানান, আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী মাইনউদ্দিন এর বাড়ি নরসিংদী জেলার মাধবদী থানার অনন্তরামপুর এলাকায় ও মাসুদ রানার বাড়ি গাজীপুর জেলার গাছা থানার কুনিয়া বড়বাড়ি এলাকায়। আটককৃত আসামীরা দীর্ঘদিন ধরে ক্যাভার্ড ভ্যানে ড্রাইভার ও হেলপার পেশার আড়ালে অভিনব কায়দায় ইয়াবা পাচার করে আসছিল। জিজ্ঞাসাবাদে তারা আরও স্বীকার করেন  পরস্পর যোগসাজশে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য অবৈধভাবে কাভার্ড ভ্যানযোগে অভিনব কায়দায় ইয়াবা ট্যাবলেট কক্সবাজার থেকে নিয়ে এসে নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা এবং এর আশপাশের এলাকায় বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


এসএস/বি


 



আড়াইহাজার (নারায়নগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

 নারায়নগঞ্জের আড়াইহাজারে এক রাতে দুই বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার রাতে উপজেলার সদর পৌরসভার মানিকনগর গ্রামে এই ডাকাতির ঘটনা গুলো ঘটে।

এসময় ডাকাতের হামলায় ৩ জন  গুরুতর আহত হয়েছে। এদের মধ্যে গুরুতর আহত হাবিবুর রহমান (৩২) ও তার মা জায়েদাকে (৬৫) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, গতকাল দিবাগত রোববার রাত ৩টার দিকে ১২/১৫ জনের হাফপ্যান্ট পরিহিত একদল  ডাকাত মানিকনগর গ্রামের হাবিবুর রহমানের বাড়িতে টিনের ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে  নগদ ২৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় গৃহকর্তা হাবিবুর রহমান বাঁধা দিলে তাকে ও তার মা জায়েদাকে 

এলোপাথাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। পরে ডাকাতদল তার ভাই নবী হোসেনের ঘরে ঢুকে আধা ভরি ওজনের স্বার্নালংকার ছিনিয়ে নেয়। এসময় নবী হোসেন বাঁধা দিলে তাকেও পিটিয়ে আহত করে। 

ডাকাত দল শব্দ শুনে পাশের বাড়ির বকুলের স্ত্রী রুশিয়া ঘর থেকে বের হলে তার গলার চেইন ও কানের জিনিস ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। 

ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর এলাকাবাসী আহত ৩ জনকে উদ্ধার করে আড়াইহাজার হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।  

আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) শওকত হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।


এসএস/বি

 



নিজস্ব সংবাদ দাতা- কক্সবাজার

 সারা‌দে‌শে সাংবা‌দিক নির্যাতনকারী রাক্ষু‌সে সাংবা‌দিক‌দের নাম ও তা‌লিকা প্রকা‌শের ঘোষণা দি‌য়ে‌ছে বিএমএসএফ। 

 রোববার(২০-০৯২০২০) কক্সবাজার জেলা প‌রিষদ হল রু‌মে বাংলা‌দেশ মফস্বল সাংবা‌দিক ফোরাম সাধারণ সম্পাদক ও সাংবা‌দিক নির্যাতন প্র‌তি‌রোধ ক‌মি‌টির বৈঠকে সংগঠ‌নের সমন্বয়কারী আহ‌মেদ আবু জাফর প্রধান অতিথি হিসেবে এই ঘোষণা দেন। ‌তি‌নি ব‌লেন, অন্য পেশার লোকজন ছাড়াও নিজ পেশার সাংবা‌দিক দ্বারা সাংবা‌দিকরা মামলা হামলা দ্বারা নির্যা‌তিত ও ক্ষতিগ্রস্থ হ‌চ্ছে। এ‌দের বিরু‌দ্ধে রুখে দাড়া‌নোর এখনই সময়। 

কক্সবাজা‌রে পু‌লি‌শি নির্যাত‌ন ও ক‌তিপয় সাংবা‌দিক নামধারী রাক্ষু‌সে সাংবা‌দিক‌দের ইন্ধনে ব‌হিষ্কৃত ও‌সি প্রদীপ কর্তৃক নির্যাত‌নের শিকার ফ‌রিদুল মোস্তফার চি‌কিৎসা‌র্থে আ‌র্থিক সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠা‌নে তি‌নি স্ব স্ব জেলা থে‌কে রাক্ষু‌সে সাংবা‌দিক‌দের তা‌লিকা প্রনয়ন ক‌রে প্রশাস‌নের নিকট জমা দেওয়ার আহবান জানান।

অনুষ্ঠা‌নে সভাপ‌তিত্ব ক‌রেন কক্সবাজার জেলা বিএমএসএফ'র সভাপ‌তি মোঃ মিজান উর রশীদ মিজান। বিএমএসএফ কক্সবাজার জেলার সাধারন সম্পাদক জ‌সিম উ‌দ্দিনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রা‌খেন  বাংলাদেশ মফস্বল সাংবা‌দিক ফোরা‌মের কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ খারুল আলম, কক্সবাজারের সি‌নিয়র সাংবাদিক ফজলুল কাদের চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক মুকুল, কক্সবাজার উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি দৈ‌নিক ৭১এর ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক রুহুল আমিন সিকদার, বাংলাভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মোর্শেদুর রহমান খোকন, নির্যাতিত সাংবাদিক ছালামত উল্লাহ, সাংবা‌দিক নির্যাতন প্র‌তি‌রোধ ক‌মি‌টির চক‌রিয়া শাখার সভাপ‌তি ছোটন কান্তি নাথ প্রমুখ।


 সভার শেষান্তে নির্যা‌তিত সাংবা‌দিক ফ‌রিদুল মোস্তফা কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক আহ‌মেদ আবু জাফর‌কে ফুলেল শুভেচ্ছার মাধ‌্যমে বাংলা‌দেশ মফস্বল সাংবা‌দিক ফোরাম (বিএমএসএফ)এ যোগদান ক‌রেন।

মতবিনিময় সভা শে‌ষে ‌বিএমএসএফ'র নেতৃবৃন্দ জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের মাধ্য‌মে নির্যা‌তিত সাংবাদিক ফ‌রিদুল মোস্তফা‌কে নদগ ১লক্ষ টাকা ‌চি‌কিৎসা সহায়তা প্রদান ক‌রেন।

 এ সময় জেলা প্রশাসক নির্যাতিত সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফার সুখ-দুঃখের বিষয়গুলো গুরুত্ব সহকা‌রে শোনেন। জেলা প্রশাসক তার ওপর ঘটে যাওয়া অমানবিক ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। সেই সঙ্গে ফরিদের বিষ‌য়ে আন্তরিক ভাবেই সহযোগিতার আশ্বাস দেন। সাক্ষাতকালে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মো: শাজাহান আলিসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বিএমএসএফ কেন্দ্রীয় নেতা এসএম জীবন, এমএ আকরাম, শারমিন সুলতানা মিতু, সোহাগ আরেফিন, ফয়সাল আজম অপু, কবির নেওয়াজ, জুয়েল খন্দকারসহ সোহেল সরদার, হুমাউন কবির, জানে আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


এসএস/বি

 





শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ,
নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁওয়ে, প্রয়াত সাবেক এমপি নাসিম ওসমানের সহধর্মিণী মিসেস পারভীন ওসমান ও সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সহধর্মিণী মিসেস সালমা ওসমান সহ পরিবারের সকল সদস্যদের রোগমুক্তি কামনায় মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 ওসমান পরিবারের সকল সদস্যদের রোগমুক্তি কামনায় আজ রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জ জেলাপরিষদ অডিটোরিয়ামে (সোনারগাঁও) শতশত নেতাকর্মী ও গুণিজনদের উপস্থিতে মিলাদ মাহফিল ও দোয়ার মুনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

সোনারগাঁ উপজেলা জাতীয় পার্টি ও এর অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত এ মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য, জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি লিয়াকত হোসেন খোকা।


সোনারগাঁওয়ে অবস্থিত নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত এই মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠানে সোনারগাঁও পৌরসভা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক  এমএ জামানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাইম ইকবাল, নোয়াগাঁও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শামসুল আলম সামসু,পিরোজপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক ও সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভুঁইয়া, সাদিপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি আবুল হাসেম, উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতা রেজাউল করিম, বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক মোঃআলী মেম্বার, সনমান্দী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক আবুল হোসেন, পৌরসভা জাতীয় পার্টির যুগ্ন আহ্বায়ক মোঃআলী, জাতীয় সেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজ কল্যান সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ফজলুল হক মাষ্টার, সাবেক কাউন্সিলর গরীব নেওয়াজ, হাজী লিয়াকত আলী, মহিলা কাউন্সিলর জাহেদা আক্তার মনি, কাউন্সিলর ফারুক আহমেদ তপন, মনিরুজ্জামান মধু।


আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও নারায়ণগঞ্জ জেলার সদস্য সচিব জাবেদ রায়হান, পৌরসভা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব শফিকুল ইসলাম শফি, সনমান্দী ইউনিয়নের জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব হারুনর রশীদ মোল্লা, শম্ভুপুরা ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন তোতা, পিরোজপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব শহীদ সরকার, বারদী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব দাইয়ান মেম্বার, বারদী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির নেতা আনোয়ার হোসেন আনু এবং রফিক মেম্বার সহ প্রমূখ।

এসএস/বি

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ে  অবৈধ কারেন্ট জাল বিক্রির সময় ২০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ করেন সোনারগাঁও উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জেসমিন আক্তার। 

আজ রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের কাইকারটেক বাজারে অভিযান চালিয়ে কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়।

এ সময় জাল বিক্রয়ের সাথে জড়িতরা পালিয়ে যায়। জব্দকৃত জালের আনুমানিক দাম প্রায় সাড়ে ৪ লাখ টাকা।
পরে জব্দকৃত জাল উপজেলা চত্বরে এনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।

সোনারগাঁও উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জেসমিন আক্তার বলেন,আগামী ১৪ ই অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত সব নদীতে ইলিশ সহ সব ধরনের মৎস্য নিধন বন্দ থাকবে,ইলিশ সম্পদ টাকে রক্ষা করার জন্য। 
অবৈধ কারেন্ট জাল মেট সাইজ টা অনেক ছোট, এধরনের জাল নদিতে পাতলে শুধুমাত্র ইলিশ মাছই না সব ধরনের মাছের পোনা ধ্বংস হয়ে যাবে। তাই বাচ্চা মাছটাকে রক্ষায় এই অপরাধমূলক কর্মকান্ডে তারা যেন পর্যাপ্ত জাল ব্যাবহার করতে না পারে এবং এই সময়টাতে যাতে বেশী পোনা মাছ নিধন করতে না পারে,এই উদ্দেশ্যে আমরা অভিযান চালিয়েছি। 


 কারেন্ট জাল সব সময় নিষিদ্ধ এটা কখনই  ব্যাবহারের উপযুক্ত কোনো জাল নয়।
তাই মা ইলিশকে সামনে রেখে ডিম ছাড়ার পিক আওয়ারে তাদের রক্ষার জন্য অভিযানটি চালাচ্ছি এবং চালিয়ে যাবো।

এসএস/বি




মোঃ মীমরাজ হোসেনঃ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের সনমান্দী ইউনিয়ন চরলাল মসজিদ থেকে গিরদান পর্যন্ত রাস্তার সিসি ঢালাই কাজের শুভ উদ্বোধন করেন সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ্।

২০ই সেপ্টেম্বর ১০০০ ফিট সিসি ঢালাই কাজের উদ্বোধন করেন সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ ।


এসময় উপস্থিত ছিলেন, সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান খন্দকার আমিনুল হক, আওয়ামীলীগ নেতা হাজী জসীম উদ্দীন চৌধুরী,আওয়ামীলীগ নেতা গোলজার হোসেন,কৃষকলীগের সভাপতি জামাল হোসেন, সনমান্দী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সোলাইমান হোসেন সুজন,  ছাত্রলীগ সভাপতি নয়ন আহমেদ সবুজ, যুবলীগ নেতা আবু কাউসার ও ৮নং ওয়ার্ড সদস্য হারুন অর রশীদ মোল্লা  সহ প্রমূখ।


এসএস/বি


মামুন আহমেদ জয়,আড়াইহাজার(নারায়ণগঞ্জ)

 বাসা-বাড়ির সৌন্দর্য বর্ধনে নানা প্রজাতির গাছ লাগিয়ে থাকে অনেকেই। করেন নিয়মিত পরিচর্যাও। বাড়ির উঠোনে তেমনই বাগান করে গ্রেপ্তার হয়েছেন দুই ভাই!

শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আড়াইহাজারের খাগকান্দা ইউনিয়নের কাকাইল মোড়া থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশ বলছে, দুই ভাই মিলে উঠোনে ‘গাঁজা চাষ’ করছিলেন।

আটক ব্যক্তিরা হলেন- কাকাইল মোড়া গ্রামের মৃত সামসুল হক প্রধানের ছেলে মোস্তফা (৫৫) ও তার ছোট ভাই গোলাম দস্তগীর (৫২)।

গোপনে খবরে ওসি (তদন্ত) শওকত হোসেন, এসআই গাজী শামীম ও এসআই পলাশ কান্তি রায়ের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালন করা হয়। এ সময় বাড়ির উঠোনে চাষ করা তিনটি গাঁজা গাছ উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে বড় গাছ দুটি ১৭ থেকে ১৮ ফিট লম্বা এবং ছোটটি প্রায় পাঁচ ফিটের।

আড়াইহাজার থানার উপপরিদর্শক গাজী শামীম জানান, মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এই ঘটনায় অন্য কেউ জড়িত আছে কিনা? তা নিয়েও তদন্ত চলছে।


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সোনারগাঁও থানাধীন চৈতি গার্মেন্টসের সামনে ও সোনারগাঁও ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ১০০ গজ দূরে চলন্ত মাইক্রোবাসের ইঞ্জিনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। 

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাত ১১ ঘটিকার সময় এ ঘটনা ঘটে।

কক্সবাজারে কারা নির্যাতিত সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফার চিকিৎসা সহায়তা উপলক্ষে ২০ সেপ্টেম্বর এক মতবিনিময় সভায় যাওয়ার পথে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও সাংবাদিক নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সমন্বয়কারী আহমেদ আবু জাফরসহ আরো ৯জন সাংবাদিক ঢাকা থেকে কক্সবাজারের উদ্দ্যেশে মাইক্রোবাস যোগে যাত্রা শুরু করেন।

পতিমধ্যে,যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে গাড়িটির ইন্জিনে আগুন ধরে যায়।


এই বিষয়ে বি এম এস এফ'র প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর বলেন, যাত্রাপথে ঢাকা -চট্টগ্রাম মহাসড়কে চৈতি গার্মেন্টস এর সামনে গাড়িতে আগুন লেগে যায়। আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে আমরা গাড়ি থেকে নেমে যাই।যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে এ আগুন লাগতে পারে।তবে এতে হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। 

তিনি বলেন আগামী রোববার(২০-০৯-২০২০) সকাল দশ ঘটিকায় কক্সবাজার জেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম এই মতবিনিময় সভা অনুুষ্ঠিত হইবে।



দূর্ঘটনার খবর পেয়ে বিএমএসএফ সোনারগাও শাখার আহ্বায়ক কমিটির সদস্য-সচিব ফারুকুল ইসলাম,  ও মাজহারুল রাসেল, সমির সরকার সবুজ সহ সাংবাদিকরা ছুটে আসেন।


 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ সোনারগাঁওয়ে তপু রাসেলের উদ্যোগে ওসমান পরিবারের রোগ মুক্তি কামনায় মসজিদে মসজিদে মিলাদ মাহফিল অনুুষ্ঠিত। 

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তপু ঘোষ ও সোনারগাঁও উপজেলা শাখার ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রাসেলের উদ্যোগে সোনারগাঁ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে জননেতা একেএম শামীম ওসমান ও তার পত্নী সালমা ওসমান লিপি সহ তার পরিবারের সুস্থতা কামনা করে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। 

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বাদ জুম্মা একযুগে সোনারগাঁওয়ের  বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসায় নারায়ণগঞ্জ (৪) আসনের সংসদ সদস্য জননেতা এ কে এম শামীম ওসমান তার সহধর্মিণী শ্রদ্ধেয় লিপি ওসমান সহ এই পরিবারের সকলের সুস্থতা কামনায় বিশেষ দোয়া ও মিলাদ পড়ানো হয়।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের সহধর্মিনী, নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি, কিছু দিন ধরে অসুস্থ থাকায় তার রোগ মুক্তি কামনা করে ছাত্রলীগের সোনারগাঁও শাখার যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রাসেলের সার্বিক দিক নির্দেশনায় সোনারগাঁয়ের প্রায় প্রত্যেকটি মসজিদে দোয়া ও বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করা হয়। 

এ প্রসঙ্গে তিনি জানান, কাঁচপুরে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি শামীমের তত্বাবধানে মাওলানা মুনির হোসাইন দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন। এছাড়া সনমান্দী ইউনিয়নে ছাত্রলীগ নেতা আশরাফুল ইসলাম সোহান, সাব্বির আহম্মেদ, ইয়াসিন আহম্মেদের তত্বাবধানে মাওলানা সিরাজুল ইসলাম মুনাজাতে আল্লাহর নিকট রোগ মুক্তি কামনা করেন।

 শম্ভুপুরা ইউনিয়নে, সোনারগাঁও উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আতিকুর রহমান রিয়াদের তত্ত্বাবধানে মাওলানা - রহমত উল্লাহ,বারদী ইউনিয়েন ছাত্রলীগ নেতা জিসান সরকারের তত্ত্বাবধানে মাওলানা -মুফতি আনোয়ার হোসাইন,পিরোজপুর ইউনিয়নে ছাত্রলীগ নেতা এস.কে সজিব, ইকবাল মাহমুদ, ইমরান আহম্মের তত্ত্বাবধানে মাওলানা- হাফেজ আমির খান, পৌরসভা ছাত্রলীগ নেতা মাহফুজের তত্ত্বাবধানে পৌরসভা মসজিদের খতিব মুনাজাত ও দোয়া পরিচালনা করেন।

দোয়া শেষে মসজিদের মুসল্লিদের জন্য মিষ্টান্নের ব্যবস্থা করেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।


এসএস/বি

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা বাইতুস সালাত জামে মসজিদ বিস্ফোরণ ঘটনায় হতাহতদের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ।

জেলা আওয়ামী লীগ নিহত ও চিকিৎসাধীন মুসল্লিদের প্রতি পরিবারকে ৩৫ হাজার এবং আহত মামুন ও সালমা বেগমকে ১৫ হাজার ৫শ` টাকা করে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন।

বৃহস্পতিবার(১৭-০৯-২০২০) দুপুরে তল্লা বড় মসজিদ ঈদগাহ মাঠে মসজিদ বিস্ফোরণের ঘটনায় হতাহতের পরিবারের কাছে এই আর্থিক সহায়তা তুলে দেওয়া হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত শহীদ মোঃ বাদলের সঞ্চালনায় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সাবেক সাংসদ আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান বাচ্চু, খবির উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক ডাঃ আবু জাফর চৌধুরী বিরু, ইকবাল পারভেজ, আড়াইহাজার পৌরসভা মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুন্দর আলী, মহানগর যুবলীগ সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন ভূইয়া সাজনু, সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু সহ প্রমুখ।

এ সময় আব্দুল হাই বলেন, গত ৪ সেপ্টেম্বর মসজিদে বিস্ফোরণের মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। আমরা নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা এই ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করছি। যারা মারা গেছেন তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করি এবং যারা চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন তারা যাতে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠে সেই দোয়া করি। আপনারা যারা আপনজন হারিয়েছেন তাদেরকে আমরা ফিরিয়ে দিতে পারবো না, সেই ক্ষমতা আমাদের নেই। আপনারা যারা তাদের উত্তরাধিকার রয়েছেন তাদের ভবিষ্যতে চলার পথ একটু যেন সহজ হয় সে উদ্দেশ্য নিয়ে আপনাদের পাশে দাড়ানো। আমরা কোনো অনুদান দিতে এখানে আসি নাই, আমরা আপনাদের পরিবারের সদস্য হিসেবে আপনাদের পাশে দাড়াতে এসেছি।


এসএস/বি

 




সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

 নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানার কেওঢালা এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৫জন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ । 

বৃহস্পতিবার ( ১৭সেপ্টেম্বর ) বিকালে র‌্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( সিপিএসসি আদমজীনগর) মোঃ জসিম উদ্দীন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন মোঃ আমিনুল ইসলাম @ শাহিন (৩৭), মোঃ সাদেক হোসেন (৩০), শ্রাবণ আকন (১৮), মোঃ ইয়াছিন আহম্মেদ @ জুনায়েদ (২২) , মোঃ আশিকুর রহমান শিকদার @ শাকিব (২২)। 

বৃহস্পতিবার ( ১৭ সেপ্টেম্বর) রাত দেড়টায় গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ (সিপিএসসি, নারায়ণগঞ্জ) অভিয়ান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে। এ সময় তাদের দখল হতে ০২টি চাইনিজ কুড়াল, ২টি স্টীলের চাকু, স্টীলের তৈরি ২টি ছুরি, ১টি রামদা, ১টি তরবারী, ১টি পিস্তলের কভার, ১টি হাসুয়া এবং ৩০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় গ্রেফতারকৃত আসামীরা দুর্ধর্ষ পেশাদার সন্ত্রাসী, অপহরণকারী ও চাঁদাবাজ চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ পরষ্পর যোগসাজশে দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে সংঘবদ্ধভাবে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়, মাদক ব্যবসাসহ নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছিল। গ্রেফতারকৃত দুষ্কৃতিকারীদের অপরাধ সংঘটনের সুনির্দিষ্ট তথ্যসহ কিছু ছবি পাওয়ার পর দীর্ঘদিন যাবৎ গোয়েন্দা নজরদারীর মাধ্যমে এই সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী চক্রকে শনাক্ত করে র‌্যাব। 

 র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকস দল ১৭ সেপ্টেম্বর রাত ০১.৩০ টায় বন্দর থানাধীন কেওঢালা এলাকা হতে সংঘবদ্ধ অবস্থায় ০৫ জন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ আমিনুল ইসলাম, শাহিন এর নেতৃত্বে একটি কিশোর গ্যাং চক্র মদনপুর এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসাসহ নানা ধরনের অপরাধমূলক কাজ করে আসছিল এবং তার বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।


এসএস/বি


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

 সোনারগাঁও পৌরসভায় জাতীয়পার্টির ৩১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। আক্তার হোসেন ভূঁইয়াকে সভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর জসিম উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক করে এই কমিটি গঠন করা হয়।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব জননেতা লিয়াকত হোসেন খোকা এমপির নির্দেশে সোনারগাঁ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সন্মেলন আজ (১৭ সেপ্টেম্বর) পৌরসভার দরপত ঠোটালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। 

পৌরসভা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক এম এ জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সন্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাইম ইকবাল। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজ কল্যাণ সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু, দফতর সম্পাদক মাহবুবুর রহমান কামাল।


আরো উপস্থিত ছিলেন, সোনারগাঁ পৌরসভা জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি মোহাম্মদ আলী, জাতীয় পার্টির নেতা গরীব নেওয়াজ,পৌরসভা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব শফিকুল ইসলাম শফি, জাতীয় পার্টি নেতা মোক্তার হোসেন, মিলন মিয়া,আঃ রউফ, হানিফ মাস্টার, আলহাজ মোস্তাফা কামাল, কাউন্সিলর শাহজালাল, আক্তার হোসেন ভূঁইয়া, জসিম উদ্দিন, মজিবর,শামীম মিয়া, আইউব খানঁ প্রমুখ । 

কাউন্সিলে সর্বসম্মতিক্রমে মোঃ আক্তার হোসেন ভূইয়াকে সভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর জসিমউদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট ১ নং ওয়ার্ড কমিটি গঠন করা হইয়াছে ।


এসএস/বি

 


সোনারগাঁ প্রতিনিধিঃ

নারায়ণগঞ্জ জেলার মধ্যে সোনারগাঁ উপজেলা ছিল একসময়কার বিএনপির ঘাঁটি। অদক্ষ ও অযোগ্য নেতাকর্মী দের জন্য এখন বিএনপি সোনারগাঁয়ে ধ্বংসের পথে এসে দাঁড়িয়েছে ।

এক সময় সোনারগাঁয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা ছিল খুবই জনপ্রিয়।

সোনারগাঁ উপজেলা থেকে অধ্যাপক রেজাউল করিম পরপর তিন বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন । সাবেক এমপি অধ্যাপক রেজাউল করিমের নেতৃত্বে সোনারগাঁ উপজেলা বিএনপি ছিল জনপ্রিয়তার শীর্ষে একটি রাজনৈতিক সংগঠন।

তার জনপ্রিয়তা এবং সুযোগ্য নেতৃত্বে জন্য সে উপজেলায় তিনবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য হয়েছেন।

কিন্তু বর্তমানে সোনারগাঁ বিএনপির প্রায় ধ্বংসের পথে এসে দাঁড়িয়েছে , কারণ হিসেবে সোনারগাঁও উপজেলার সাবেক নেতাকর্মীরা বিএনপির বর্তমান সোনারগাঁ উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম মান্নানকে দায়ী করছেন।

তাদের ধারণা সোনারগাঁ উপজেলা বিএনপিকে ধ্বংস করার পিছনে আজহারুল ইসলাম মান্নান অঙ্গাঙ্গিকভাবে জড়িত। বিগত সংসদ নির্বাচনে সে টাকার বিনিময় মনোনয়ন নিয়ে আসে কিন্তু তার জনপ্রিয়তা ও নেতাকর্মীদের অভাবে সে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ায়।

সোনারগাঁ বিএনপির বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম মান্নান অধ্যাপক রেজাউল করিমের হাত ধরে রাজনীতিতে আসেন এবং বিপুল অর্থের বিনিময়ে তিনি উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক বনে যান।

তারপর বিভিন্ন সময় অর্থের বিনিময় কেন্দ্রীয় নেতাদের ম্যানেজ এর মাধ্যমে সে রাজনীতিতে টিকে থাকে।

কিন্তু সংগঠনের দিক দিয়ে সে অনেক পিছিয়ে যায় কারণ হলো তার সাথে যে সমস্ত নেতাকর্মীরা থাকে তারা তার বেতনভুক্ত কর্মচারী হিসেবে কাজ করে থাকে তাই দলের প্রতি তাদের কোন মায়া নেই বলে জানান সোনারগাঁও উপজেলা সাধারণ তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

আর অধ্যাপক রেজাউল করিম রাজনীতি থেকে অঘোষিতভাবে বিদায় নিয়েছেন বলে জানিয়েছে সোনারগাঁয়ের অনেক নেতাকর্মী।

অধ্যাপক রেজাউল করিমের বিদায় নেওয়ার দরুন তার নিজস্ব যে সমস্ত নেতাকর্মী ছিল তাদেরকে সোনারগাঁও উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম মান্নান তার দলে নিতে ব্যর্থ হন। কারণ হিসেবে সোনারগাঁও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি শামীম আহমেদ তপু বলেন মান্নান  অশিক্ষিত নেতা তার ব্যবহার খারাপ এবং তারমধ্যে নেতৃত্ব দেওয়ার মতো যোগ্যতা নেই ।

সে সবাইকে টাকার বিনিময় নিজের কর্মচারী বানিয়ে রাখতে চায়।

নাম  প্রকাশ  না করার শর্তে  তৃণমূল  নেতাকর্মীরা জানান বিগত আন্দোলন সংগ্রামের সময় সোনারগাঁ বিএনপি পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন কারণ হলো টাকার বিনিময় সবাই নেতা হয়েছেন কেউ তাই রাজপথে নামতে চায় না ।অন্যদিকে সোনারগাঁও উপজেলা বিএনপি সভাপতি খন্দকার আবু জাফর নেতাকর্মীবিহীন নেতা হিসেবে পরিচয় পেয়েছেন সোনারগাঁয়ে।

তৃণমূলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের ধারণা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অযোগ্য নেতৃত্বের জন্য বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী বর্তমান সোনারগাঁয়ের এমপি জনাব লিয়াকত হোসেন খোকার জাতীয় পার্টিতে যোগ দিচ্ছেন।

তাই ভবিষ্যতে সোনারগাঁও উপজেলা বিএনপির অস্তিত্ব সংকটে পড়বে বলে মনে করছেন তারা।

সোনারগাঁ উপজেলা বিএনপির এই করুণ দুর্দশা সম্পর্কে জানার জন্য উপজেলা বিএনপির সভাপতি খন্দকার আবু জাফর ও সাধারণ সম্পাদক আজহারুল ইসলাম মান্নানের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তারা তাদের মোবাইল ফোন রিসিভ করেনি।


এসএস/বি



সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ মিলে স্থানীয় পর্যায়ের ৭৩টি পদে নির্বাচনের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম ছেড়েছে আওয়ামী লীগ। 

বুধবার (১৬-০৯-২০২০)থেকে আগামী রোববার পর্যন্ত ফরম সংগ্রহ ও জমা দিতে পারবেন আগ্রহীরা। দলের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়ার পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে দলীয় প্রধানের নির্দেশনা অনুসারে মনোনয়ন প্রত্যাশী সবাইকে যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষাবিধি মেনে এবং কোনো প্রকার লোকসমাগম না করে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে। একজন বা দুজন ব্যক্তির বেশি প্রবেশ না করতে বলা হয়েছে। আবেদনপত্র সংগ্রহের সময় অবশ্যই প্রার্থীর জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি জমা দিতে হবে বলে জানানো হয়।বিজ্ঞাপন

তিনটি জেলা পরিষদ হচ্ছে ফরিদপুর, মৌলভীবাজার ও মাদারীপুর। উপজেলা পরিষদের মধ্যে আছে নওগাঁর মান্দা, যশোর সদর, বাগেরহাটের শরণখোলা, খুলনার পাইকগাছা, মাদারীপুরের শিবচর, সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ, কুমিল্লার দাউদকান্দি, চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ ও চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া। এ ছাড়া দিনাজপুর, রংপুর, লালমনিরহাট, বগুড়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, বাগেরহাট, চুয়াডাঙ্গা, সাতক্ষীরা, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, নারায়ণগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, গাজীপুর, নরসিংদী, ফরিদপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, সিলেট, মৌলভীবাজার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কুমিল্লা, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হচ্ছে।

এসএস/বি


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

 নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির ৪১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তাস্থ আইয়ুব প্লাজায় অবস্থিত নারায়ণগঞ্জ -৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার রাজনৈতিক কার্যালয়ে মতবিনিময় সভায় নেতাকর্মীদের সর্ব সম্মতিক্রমে এই আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা।

মতবিনিময় সভায় মোঃ আবুল হোসেনকে আহ্বায়ক ও সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মোঃ হারুন উর রশীদ মোল্লা কে সদস্য-সচিব করে করা এই কমিটির নাম ঘোষণা করেন, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা।

যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে,

মোঃ ইসরাফিল প্রধান, মোঃ মোসলেউদ্দিন, মোঃ তোতা মিয়া মেম্বার, মোঃ মোমেন সরকার মেম্বার, মোঃ ফিরোজ মিয়া মেম্বার, মোঃ মহিউদ্দিন মেম্বার ও মোঃ সাইফুল ইসলাম মেম্বার কে।


আহ্বায়ক কমিটির সদস্যরা হলেন, 

মোঃ রুহুল আমিন (সাবেক মেম্বার), মোঃ হারুন বেপারি ( সাবেক মেম্বার),  মোঃ মতিউর রহমান মতি ( সাবেক মেম্বার),  মোঃ আমানউল্লাহ আমান,সামসুল হক (সাবেক মেম্বার), লৎফা বেগম মেম্বার, খাদিজা বেগম মেম্বার, হাজী আনোয়ার হোসেন, বিল্লাল মুন্সী, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন,হালিম সরকার, এম,এ,সাইদ, মোঃ সিকান্দার আলী, মোঃ বাদল মিয়া, আনোয়ার হোসেন, আব্দুল লতিফ মিয়া, মোঃ মনির হোসেন,মোঃ দিদার হোসেন,মোঃ নেহালউদ্দিন, হাসনে হেনা বেগম, সানোয়ারা বেগম, মোঃ শফিকুল ইসলাম ভুঁইয়া, মোঃ রিপন ভুইয়া, আমির হোসেন ভুইয়া,মোঃ ইসমাইল প্রধান, মোঃ মোখলেছুর রহমান, মোঃ বদিউজ্জামান,মোঃ ইকবাল হোসেন,মোঃ মোস্তাক আহমেদ,মোঃ মঞ্জুর হোসেন, মোঃ সুমন আহমেদ ও মোঃ নাসিরউদ্দিন। 

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব জননেতা লিয়াকত হোসেন খোকা এমপির  নির্দেশনায় সকল সদস্যদের সাথে সারাদিন ব্যাপী মতবিনিময় সভা করেন  করেন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাইম ইকবাল।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জামপুর ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান শাহ্ মোহাম্মদ হানিফ, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সমাজ কল্যান সম্পাদক মোঃ আনিসুর রহমান বাবু, মোঃ ফজলুল হক মাষ্টার, আবু তালেব চৌধুরী জিসান সহ জাতীয় পার্টি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

এসএস/বি

 


নারায়নগঞ্জ প্রিতিনিধিঃ

নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত অন্যতম প্রচারিত দৈনিক সময়ের নারায়ণগঞ্জে ঘোষণা পত্র বাতিল করেছেন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট।

 ১৬ সেপ্টেম্বর বুধবার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জসিম উদ্দিন স্বাক্ষরিত ঘোষণা পত্র বাতিলের প্রজ্ঞাপনটি সম্পাদক ও প্রকাশক জাবেদ আহমেদ জুয়েলের হস্তগত হয়। এ প্রজ্ঞাপনে ছাপা খানা ও প্রকাশনা ১৯৭৬ এর ১০ ধারা অনুযায়ী ঘোষণা পত্র বাতিলের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে জাবেদ আহমেদ জুয়েল  জানান, ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর থেকে পত্রিকাটি নিয়মিত প্রকাশ হয়ে আসছে। এর ডিক্লারেশন নারায়ণগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হতে গৃহিত। শুরুতে পত্রিকাটি সাদা কালো হলেও পরবর্তীতে ৪ রঙে ছাপা হচ্ছে। সে কারণেই আরো উন্নত ছাপার জন্য নারায়ণগঞ্জের আজগর প্রিন্টিং প্রেস থেকে রাজধানীর একটি প্রেসে ছাপানো শুরু হয়। ২০১৯ সালের ১৫ এপ্রিল আজগর প্রিন্টিং প্রেস এ ব্যাপারে অনাপত্তি পত্র প্রদান করেন। বিষয়টি দুইদিন পর ১৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তথা জেলা প্রশাসককে লিখিত আকারে অবহিত করা হয়। জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ওই চিঠিটি গ্রহণ করেন। তিনি আরো বলেন, উন্নত ছাপার জন্য নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত সবগুলো দৈনিক পত্রিকা ঢাকার বিভিন্ন প্রেস থেকে ছাপানো হয়। বিষয়টি জেলা ম্যাজিস্ট্রেটও অবহিত। 

কিন্তু এরপরও সময়ের নারায়ণগঞ্জের ডিক্লারেশন বাতিল গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করার সামিল মনে করি। সময়ের নারায়ণগঞ্জ সব সময় স্বাধীনতার পক্ষে সার্বভৌমত্বের পক্ষে সংবাদ প্রকাশ করে আসছে। নারায়ণগঞ্জে সরকারের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডগুলো যথার্থ গুরুত্ব দিয়ে পাঠকের দৌড়গোড়ায় পৌছে দিচ্ছে। সে কারণে অল্প কয়েক বছরে দৈনিক সময়ের নারায়ণগঞ্জ পাঠক প্রিয় হয়ে উঠেছে। এ অবস্থায় উন্নত ছাপার জন্য প্রেস পরিবর্তনের বিষয়টি জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে অবহিত করার পরও ঘোষণা পত্র বাতিল দুঃখজনক।


এসটস/বি

 


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নীলফামারির পৌরমেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদের দূর্নীতি ও অনিয়মের ভয়ংকর চিত্র উঠে এসেছে ইন্ডিপেনডেন্টের তালাশ টীমের অনুসন্ধানে। মেয়রের বিরুদ্ধে স্থানীয়দের যেনো অভিযোগের কোনো অন্ত নেই।পৌরমেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে নীলফামারি জেলা পরিষদ কতৃপক্ষেরও।অভিযোগ রয়েছে জেলা পরিষদের জমিতে পৌর সুপার মার্কেট নামে একটি মার্কেট নির্মাণ করে পৌর কতৃপক্ষ। দোকানঘর বরাদ্দ ও ভাড়ার ন্যায্য হিস্যা দেয়ার কথা থাকলেও জেলা পরিষদ কতৃপক্ষের অভিযোগ তার কোনোটাই মানছেননা পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ। এমনকি চুক্তি অনুযায়ী মার্কেটের নাম জেলা পরিষদ পৌর মার্কেট হওয়ার কথা থাকলেও তিনি তা করেননি। টানা ৩২ বৎসর ধরে মেয়রের দায়িত্ব পালন করে আসা দেওয়ান কামাল আহমেদের নামে অভিযোগ আছে নির্বাচন পিছিয়ে রাখার বিষয়েও।জানা গেছে অনেক বছর ধরে নির্বাচন না হওয়ার কারন হলো পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের সাথে সীমানা জটিলতার মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া।স্থানীয়দের অভিযোগ এ মামলাটি পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ এবং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঁতাত করে করেছেন।স্থানীয় অনেকেরই বক্তব্য হচ্ছে মামলাটি নিষ্পত্তি না হলে মেয়রেরও লাভ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানেরও লাভ।তাই পৌর মেয়র কামাল আহমেদ ও তার সহযোগীরা সীমানা জটিলতার মামলাটি ঝুলিয়ে রেখে নির্বাচন পিছিয়ে রেখেছেন।ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাফিজুর রশিদ মঞ্জু আঁতাতের বিষয়টি অস্বীকার করলেও স্থানীয়দের অভিযোগ মামলার বিবাদী হয়ে তিনি দিনের ২০ঘন্টা মেয়রের সাথেই ওঠাবসা করেন।এছাড়াও পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে অর্থ আত্মসাতেরও।মেয়র কামাল আহমেদের মালিকানাধীন এক একর জমি অধিগ্রহণ করে জেলা পরিষদের ভুমি অধিগ্রহণ বিভাগ।হারোয়া মৌজার ঐ জমির বর্তমান শ্রেণী ডাঙা ও দোলা।অধিগ্রহণে দেখানো হয়েছে বাগান শ্রেনী।কিন্তু হারোয়া মৌজায় কোনো জমি বাগান শ্রেনী নেই।ডাঙা ও দোলা শ্রেণীর বাজার মুল্য সাড়ে ৬৫০০০টাকা হলেও বাগান শ্রেণীর দেখিয়ে মুল্য ধরা হয়েছে ২লাখ ৩হাজার টাকা।এতে করে একশো শতাংশ জমি অধিগ্রহণে অতিরিক্ত আত্মসাৎ করা হয়েছে  ৪কোটি ১০লাখ টাকা।এর দায় পৌর মেয়র জেলা প্রশাসনকে দিলেও জেলা প্রশাসক এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাননি।কারন অধিগ্রহণের সময়ে তিনি দায়িত্বে ছিলেননা বলে দায় এড়িয়ে যান।স্থানীয়দের বক্তব্য হচ্ছে পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ ও তার সহযোগীদের কারনে তারা কোনঠাসা হয়ে আছেন।তাদের প্রশ্ন এ বিষয়ে তারা প্রতিকার পাবেন কি?কে বা কারা করবে প্রতিকার?


এসএস/বি

 


সদ্য সংবাদ ডেস্কঃ

 নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার জামপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির ৫১ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তাস্থ আইয়ুব প্লাজায় অবস্থিত নারায়ণগঞ্জ -৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার রাজনৈতিক কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের সর্ব সম্মতিক্রমে এই আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

জাতীয় পার্টিতে সদ্য যোগদানকারী জামপুর ইউনিয়ন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আশরাফুল ভূঁইয়া মাসুদকে আহবায়ক ও আলীজান মেম্বার কে সদস্য-সচিব করে এই কমিটির নাম ঘোষণা করেন, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা।

এসময় জামপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক আলহাজ্ব ছগির হোসেন ভূঁইয়া, মোঃ দেলোয়ার হোসেন, মোঃ ইব্রাহিম ভূঁইয়া, মোঃ কামরুজ্জামান ভূঁইয়া, মোঃ সুজন ভূঁইয়া, মোঃ সানাউল্লাহ্, মোঃ করিম ভূঁইয়া, মোঃ বকুল ভূঁইয়া, মোঃ জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া, সদস্য - নিলুফা বেগম ময়না, জরিনা বেগম, আতাউর রহমান রাজা, দ্বীন মোহাম্মদ, মোঃ শাহ্ আলম, আশরাফুল আলম, মোঃ রিপন, দিলবার হোসেন ও মোঃ সাইফুল ইসলামের নাম ঘোষণা করেন সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা। 

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাইম ইকবাল, জামপুর ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান শাহ্ মোহাম্মদ হানিফ, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সমাজ কল্যান সম্পাদক মোঃ আনিসুর রহমান বাবু,ফজলুল হক, জাতীয় পার্টি পৌরসভা নেতা অখিল মেম্বার, মোশাররফ মোল্লা, আনোয়ার হোসেন সহ জাতীয় পার্টি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা।


এসএস/বি

 


মামুন আহমেদ জয়,আড়াইহাজার(নারায়ণগঞ্জ)প্রতিনিধিঃ

নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে অভিযান চালিয়েছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। এ সময় ৫ শতাধিক অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

আজ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার দুপ্তারা ইউনিয়নের পাঁচগাও এলাকার কর্মকারপাড়া মোড়ে অভিযান চালানো হয়। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহাগ হোসেন, তিতাসের সোনারগাঁও জোনাল অফিসের উপব্যবস্থাপক মেজবাউর রহমান। অভিযানে অবৈধ সংযোগে ব্যবহৃত পাইপ ও গ্যাস লাইনের রাইজার ও রেগুলেটর জব্দ করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকার সোহাগ হোসেন জানান, উপজেলায় নিয়মিত অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণে অভিযান চলবে। 

তিতাস গ্যাসের সহায়তায় পুরো আড়াইহাজার উপজেলায় অবৈধ সংযোগ সমূহকে ১৪টি স্পটে বিভক্ত করা হয়েছে। আগামী দিনগুলোতে এই ১৪টি স্পটে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হবে।




শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎঃ

নারায়ণগঞ্জ জেলায় ব্যাপক হারে বাড়ছে শিশু শ্রম।
 আড়াইহাজার,রুপগঞ্জ,বন্দর,ফতুল্লা ও সোনারগাঁও  উপজেলায় সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় এখানে শিশু শ্রমিকের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। পরিণত বয়সের আগে শিশু-কিশোরদের ঝুঁকিপূর্ণ কাজের সঙ্গে জড়িত না হওয়ার নানা নীতিমালা থাকলেও এ ব্যাপারে প্রশাসনের কোনো নজরদারি নেই বা চোখে পড়ছে না।
রাষ্ট্রের প্রদত্ব মৌলিক অধিকারের সঠিক প্রয়োগ বা বাস্তবায়ন নেই। 
 ফলে ক্ষুধা, দারিদ্র্য ও অভাব-অনটনে পড়ে খুব সহজেই শ্রমিকের জীবন বেছে নিচ্ছে শিশুরা।

জেলার বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, সিটি কর্পোরেশন,পৌরসভা সহ বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চলের দরিদ্র মা-বাবার ৮ -১২ বছর বয়সী শিশু-কিশোররা রীতিমতো শিশুশ্রমে জড়িয়ে জীবন-জীবিকা নির্বাহ করছে। যে বয়সে তাদের বই, কলম ও খাতা হাতে নিয়ে স্কুলে যাওয়ার কথা, সেই বয়সে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে জড়িয়ে পড়ছে হতভাগ্য এসব শিশু।কারখানা,হকারগিরি, কুলিগিরি, ভ্যান-রিকশা চালানো, রাজমিস্ত্রির জোগালি কিংবা ইটভাটায় কাজ করছে তারা।

নারায়ণগঞ্জ জেলায় বিভিন্ন মিল-কলকারখানা-গার্মেন্টস শিল্প তৈরি হওয়ায়, ইউনিয়ন পরিষদ থেকে মিথ্যা বয়স দেখিয়ে জন্ম নিবন্ধন আর ভুয়া অষ্টম শ্রেণি পাসের সার্টিফিকেট তৈরি করে অপ্রাপ্ত বয়সেই চাকরিতে ঢুকছে তারা। শিশু বয়সে কঠোর পরিশ্রম আর শারীরিক শ্রমের কারণে হরহামেশাই তাদের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে দেখা যাচ্ছে।

শিশু অটোরিকশা চালক সাকিব জানান, সংসারে অভাব। তাই বাবা তাকে অটোরিকশা কিনে দিয়েছেন। সে প্রতিদিন যা আয় করে তা দিয়েই তার সংসারে চলে।

শিশু ঝালমুড়ি বিক্রেতা  লাবিব জানায়, তার বাবা নেই তাই তার সংসার চালানোর জন্য সে ঝালমুড়ি বিক্রি করে থাকে।এতে করে সংসারের সবাই কে নিয়ে কোনো মত জীবিকা নির্বাহ করছে লাবিব।

বন্দর থানার মুছাপুর গ্রামের কিশোরী নার্গিস কাজ করে স্থানীয় একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে। সে বলে, ‘আমি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াকালে বাবা এক্সিডেন্টে পঙ্গু হয়ে যায়। ছোট তিন ভাই-বোন আর মা-বাবার ভরণ-পোষণের জন্য অষ্টম শ্রেণি পাসের সার্টিফিকেট দিয়ে গার্মেন্টসে চাকরি নিয়েছি। সেখান থেকে যা পাই তা দিয়ে কোনো রকম টেনেটুনে সংসার চলাই।’ 

জেলার সব এলাকার শিশুরাই কমবেশি শিশুশ্রমের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছে। তবে বিশেষ এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, শিশু শ্রমিকদের বেশির ভাগ পিতৃহীন। কারো কারো মা-বাবার বিয়ে বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ায় দেখার মতো কেউ নেই। তাই হাসি-খুশি, দুরন্ত-চঞ্চল এসব শিশুকে বাধ্য হয়ে সংসারের ঘানি টেনে যেতে হচ্ছে। ফলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ভাগ্যবিড়ম্বিত হয়ে অনেক শিশুই অকালে ঝরে পড়ছে। উপজেলায় বিভিন্ন সমাজসেবামূলক প্রতিষ্ঠান থাকলেও ভাগ্যবিড়ম্বনার শিকার এসব শিশুকে নিয়ে কেউ ভাবে না। তাদের শিশুশ্রম বন্ধ করে পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেয় না কেউ। শিশুশ্রম বন্ধে আইনের প্রয়োগ না থাকায় প্রতিনিয়ত আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে শিশুশ্রমের সংখ্যা।

জেলা শিক্ষা অফিসার (মাধ্যমিক) সাহিদা বেগম নাজমা বলেন, বৈশ্বিক করোনার প্রভাবে ‘আমাদের আশপাশে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে শিশুশ্রম। এ থেকে বেরিয়ে আসতে আমরা বিগত সময়ে স্কুলগুলোতে প্রতি মাসে একবার অভিভাবক সমাবেশ করছিলাম। তা ছাড়া প্রতি সপ্তাহে একেক দিন একেক এলাকায় গিয়ে শিক্ষকরা খোঁজখবর নিতেন কারা স্কুলে আসছে কারা আসছে না। কিন্তু এখন করোনার জন্য স্কুল বন্ধ থাকায় তা সম্ভব হচ্ছে না। করোনার পর স্কুল খুলবে তখন তাদের অভিভাবকদের বিনা মূল্যে বই বিতরণ, উপবৃত্তিসহ নানা উদ্যোগের কথা জানিয়ে এই সমস্ত শিশু শ্রমিকদের স্কুলগামী করার চেষ্টা করা হবে ।

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দীন বলেন,শিশুশ্রম একটি দণ্ডনীয় অপরাধ।
শিশুশ্রম একবারেই বন্ধ হয়ে গেছে তা নয়,তবে আগের থেকে এখন অনেক কম। কোন কারখানা,মেইল ফ্যাক্টরিতে শিশুশ্রম হচ্ছে, এমন কোন তথ্য আমাদের কাছে আসলে সংশিলিষ্ট কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে শিশুশ্রম আইনে তাৎখানিক ব্যাবস্থা নেয়া হয়।

যোগাযোগের ফর্ম

Name

Email *

Message *

Theme images by merrymoonmary. Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget